যে পাঁচ কারণে কুরআন প্রত্যেকের পড়া উচিত  

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

যে পাঁচ কারণে কুরআন প্রত্যেকের পড়া উচিত  

পরিবর্তন ডেস্ক ২:০২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৯, ২০১৯

যে পাঁচ কারণে কুরআন প্রত্যেকের পড়া উচিত  

আল-কুরআন শেষ নবী মুহাম্মদ (সা.) এর উপর নাযিলকৃত সর্বশেষ ঐশীগ্রন্থ। মানুষের জীবনে সঠিক পথে চলার নির্দেশনা দিয়ে রাসূল (সা.) এর উপর আল্লাহ দীর্ঘ তেইশ বছরে এ পবিত্র গ্রন্থ নাযিল করেন।

কিন্তু কেন সাধারণভাবে আমাদের সবার জন্যই কুরআন পাঠ করা উচিৎ? চলুন তা দেখে নেওয়া যাক––

১. মানবজাতির জন্য পথনির্দেশনা
জীবনের চলতি পথে পৃথিবীর সকল মানুষের জন্য পথনির্দেশনা হলো পবিত্র কুরআন। কুরআনে বলা হয়েছে,

“আলিফ-লাম-রা; এটি একটি গ্রন্থ, যা আমি আপনার প্রতি নাযিল করেছি-যাতে আপনি মানুষকে অন্ধকার থেকে আলোর দিকে বের করে আনেন-পরাক্রান্ত, প্রশংসার যোগ্য পালনকর্তার নির্দেশে তাঁরই পথের দিকে।” [সূরা ইবরাহীম, আয়াত: ১]

আরও বলা হয়েছে, “এর দ্বারা আল্লাহ যারা তাঁর সন্তুষ্টি কামনা করে, তাদেরকে নিরাপত্তার পথ প্রদর্শন করেন এবং তাদেরকে স্বীয় নির্দেশ দ্বারা অন্ধকার থেকে বের করে আলোর দিকে আনয়ন করেন এবং সরল পথে পরিচালনা করেন।” [সূরা আল-মায়েদা, আয়াত: ১৬]

আল্লাহ তাআলা আরও ইরশাদ করেন, “এই কুরআন এমন পথ প্রদর্শন করে, যা সর্বাধিক সরল এবং সৎকর্ম পরায়ণ মুমিনদেরকে সুসংবাদ দেয় যে, তাদের জন্যে মহা পুরস্কার রয়েছে।” [সূরা আল-ইসরা, আয়াত: ৯]

এই পথনির্দেশনাকে জানতেই আমাদের কুরআন পড়া উচিত।

২. জীবনের উদ্দেশ্য জানতে
কী কারণে আমাদের পৃথিবীতে আগমন, পৃথিবীতে আমাদের দায়িত্ব কী- মানুষের জীবনে এ প্রশ্নগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ প্রশ্নগুলোর উত্তর জানতে আমাদের কুরআন পাঠ করা উচিত।

কুরআনে এ জীবন উদ্দেশ্য সম্পর্কে বলা হয়েছে, “যিনি সৃষ্টি করেছেন মরণ ও জীবন, যাতে তোমাদেরকে পরীক্ষা করেন-কে তোমাদের মধ্যে কর্মে শ্রেষ্ঠ? তিনি পরাক্রমশালী, ক্ষমাময়।” [সূরা মুলক, আয়াত: ২]

আল্লাহ তাআলা আরও বলেন, “আমার ইবাদত করার জন্যই আমি মানব ও জিন জাতি সৃষ্টি করেছি।” [সূরা যারিয়াত, আয়াত: ৫৬]

৩. জীবনের সত্যতা অনুধাবন 
মানুষের জীবন ও তার চারপাশের সৃষ্টির প্রকৃত সত্যরূপকে জানার জন্য আমাদের কুরআন পাঠ করা প্রয়োজন। কেননা এটিই একমাত্র গ্রন্থ যেখানে নিশ্চয়তার সাথে বলা হয়েছে, “এ সেই কিতাব যাতে কোনই সন্দেহ নেই, যা পথ প্রদর্শনকারী পরহেযগারদের জন্য।” [সূরা বাকারা, আয়াত: ২]

আরও বলা হয়েছে, “আপনার প্রতিপালকের বাক্য পূর্ণ সত্য ও সুষম। তাঁর বাক্যের কোন পরিবর্তনকারী নেই। তিনিই শ্রবণকারী, মহাজ্ঞানী।” [সূরা আল-আনআম, আয়াত: ১১৫]

৪. স্রষ্টার পরিচয় জানার লক্ষ্যে
চারপাশের বিশাল এ সৃষ্টিজগতের স্রষ্টা আল্লাহকে জানার জন্যও আমাদের কুরআন পাঠ করা প্রয়োজন। কুরআন থেকেই আমরা তার প্রকৃত পরিচয় পেতে পারি।

৫. জীবনের পরিণতি বুঝতে
আমাদের জীবনের সর্বশেষ পরিণতি, মৃত্যুর পর আমাদের গন্তব্য সম্পর্কে কুরআন থেকেই আমরা যথার্থ জ্ঞান লাভ করতে পারি। সুতরাং এসম্পর্কে জানার জন্যও আমাদের কুরআন পাঠ করা প্রয়োজন।

মহান আল্লাহ আমাদের সকলকে যথার্থভাবে কুরআনের জ্ঞান অর্জনে সক্ষমতা দান করুন।

এমএফ/
আরও পড়ুন...
কুরআনের মর্মবাণীর মৌলিক ছয় প্রকারভেদ
কুরআন অধ্যয়নে কার্যকরী দুই পরামর্শ
কুরআন কেন বুঝতে হবে আমাদের?

 

কুরআনের আলো: আরও পড়ুন

আরও