ভালো কাজে ব্যর্থতা পরকালে বৃথা নয়

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

ভালো কাজে ব্যর্থতা পরকালে বৃথা নয়

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:৫২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২২, ২০১৯

ভালো কাজে ব্যর্থতা পরকালে বৃথা নয়

আমরা নানাজন নানা ভালো কাজের উদ্যোগ নেই। কখনো মনে হতে পারে ভালো কাজের এই প্রচেষ্টায় আপনি ব্যর্থ এবং অযথাই আপনি এ সকল কাজে সময় নষ্ট করছেন। 

আপনি হয়তো মানুষকে সৎকাজ বা চরিত্র গঠনের প্রতি আহবান করছেন। কিন্তু কেউই আপনার কথা শুনছে না বা আপনি মানুষের মধ্যে এর কোন প্রভাব-প্রতিক্রিয়া ও পরিবর্তন দেখতে পারছেন না। আপনার মধ্যে তখন হতাশা কাজ করতে পারে।

আপনার মনে রাখা উচিত, আপনার এ চেষ্টাতে কোন ফল দেখা না গেলেও আল্লাহ আপনাকে দেখছেন এবং তিনি আপনার অন্তর সম্পর্কে জানেন। সুতরাং, আপনার কাছে বৃথা মনে হলেও আপনার কাজ কখনোই বৃথা নয়। বরং আল্লাহ আপনার এই কাজের জন্য পুরস্কার নির্ধারণ করে রেখেছেন। 

রাসূল (সা.) যখন মিরাজে গমন করেন, তখন তিনি এমন অনেক নবী রাসূলদের দেখতে পান যাদের অনুসারীর  সংখ্যা খুবই সীমিত। কারো দশ, কারো পাঁচ, কারোবা দুই বা এক জন অনুসারী। আবার কোন কোন নবীর কোন অনুসারীই নেই।

নিশ্চিতভাবেই এই সকল নবীরা ব্যর্থ নন। তারা বৃথা সময় নষ্ট করেননি। বরং তারা যাদের কাছে দ্বীনের দাওয়াত দেওয়ার পর প্রত্যাখ্যাত হয়েছেন, সেই লোকেরাই প্রকৃত অর্থে ব্যর্থ হয়েছে।

উত্তম ও পূণ্যকাজের জন্য আপনার কোন প্রচেষ্টাই কখনো ব্যর্থ হতে পারে না। পবিত্র কুরআনে আল্লাহ বলেছেন,

إِنَّ الَّذِينَ آمَنُوا وَعَمِلُوا الصَّالِحَاتِ إِنَّا لَا نُضِيعُ أَجْرَ مَنْ أَحْسَنَ عَمَلًا

“যারা বিশ্বাস স্থাপন করে এবং সৎকর্ম সম্পাদন করে আমি সৎকর্মশীলদের পুরস্কার নষ্ট করি না।” (সূরা কাহাফ, আয়াত: ৩০)

নিশ্চয়ই আপনার এই উত্তম কাজের চেষ্টা আপনাকে আল্লাহর কাছে বিশাল সম্মানের অধিকারী করবে।

এমএফ/

 

কুরআনের আলো: আরও পড়ুন

আরও