আল্লাহর নৈকট্য চান?

ঢাকা, রবিবার, ২০ জানুয়ারি ২০১৯ | ৬ মাঘ ১৪২৫

আল্লাহর নৈকট্য চান?

মুহাম্মাদ ফয়জুল্লাহ ১০:৩২ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৮

আল্লাহর নৈকট্য চান?

মুসলমান আহলে ইলম এবং বিভিন্ন মতাদর্শের যত মানুষ আছে, সবার মাঝেই পবিত্র কুরআনুল কারিমের যে আয়াতটি বহুল আলোচিত হয় তা হল-  يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُواْ اتَّقُواْ اللّهَ وَابْتَغُواْ إِلَيهِ الْوَسِيلَةَ وَجَاهِدُواْ فِي سَبِيلِهِ لَعَلَّكُمْ تُفْلِحُونَ “হে মুমিনগণ! আল্লাহকে ভয় কর, তাঁর নৈকট্য অন্বেষণ কর এবং তাঁর পথে জিহাদ কর যাতে তোমরা সফলকাম হও।”  

এই আয়াত আলোচনায় আসার মূল কারণ আরবী ইবারতের মধ্যে ‘ওসিলাহ’ শব্দটি উল্লেখ থাকা। এই শব্দটি দলীল হিসেবে নিয়ে কেউ কেউ বলে থাকে ‘আল্লাহর নৈকট্য অর্জনে কোনো নেককার বান্দাকে মাধ্যম বানানো স্বয়ং কুরানেরই দাবী’। তথাপি এই আয়াত পুরোপুরি এর বিপরীত কথাটিই বলছে- যা আয়াতটির সহিহ তরজমা থেকেই স্পষ্ট হয়। আরবি ভাষায় ‘ওসিলাহ’ শব্দটি ‘নৈকট্য’ অর্থ প্রদান করে। আয়াতের হুকুম এটাই যে আল্লাহর ওসিলাহ অর্থাৎ তাঁর নৈকট্য অন্বেষণ করো। কোনো নৈকট্যশীল বান্দাকে তাঁর কাছে ওসিলাহ হিসেবে পেশ করার পরিবর্তে নিজেই তাঁর নৈকট্যপ্রাপ্ত বান্দা হয়ে যাও এবং দুনিয়া ও আখিরাতের সফলতা ও বিজয় লাভে ধন্য হও। এই আয়াত অনুযায়ী যার সহজ মাধ্যম হলো তাঁর পথে চেষ্টা-প্রচেষ্টা ব্যয় করা, কষ্ট মুজাহাদা করা, জিহাদ করা।

কুরআনে তাকওয়ার আদেশ তো অধিকাংশ জায়গাতেই এসেছে। কিন্তু ভালোবাসা ও নৈকট্য অর্জনের কথা কম এসেছে। তার কারণ এই যে, ভালোবাসা ও নৈকট্য একজন মানুষকে নির্ভয় এবং আমলহীন বানিয়ে দিতে পারে। যার পর প্রবল আশঙ্কা থাকে যে সে মানুষ আল্লাহর পাকড়াওয়ের মধ্যে পড়ে যাবে। তবে আল্লাহর ভালোবাসা ও তাঁর নৈকট্য লাভের প্রচণ্ড চাহিদা প্রতিটি মানুষের মাঝে থাকা চাই - কাল কিয়ামতের মাঠে যখন আমলনামা পেশ করা হবে, তখন আল্লাহ যেন আমাকে তাঁর বিশেষ নৈকট্য প্রাপ্ত বান্দাদের সাথে দাঁড় করান। যখন জান্নাতের বসতিতে আল্লাহর দরবার বসবে তখন কোনো এক পেছনের কাতারে হলেও যেন অধম স্থান পাই। আর কখনো যেন এমনও হয় যে খোদা এই এক তুচ্ছ বান্দাকে নিজের কাছে ডেকে নিয়ে সাক্ষাতের সৌভাগ্য নসিব করেন।

লোকদের জানা নেই যে আল্লাহ কত উঁচু মর্যাদাবান ক্ষমতাশালী এক মহান সত্ত্বা। তাঁর নৈকট্যও যে কত অনন্য সৌভাগ্যের। কতই না ভাগ্যবান সে সকল মানুষ যাদের মধ্যে তাঁর নৈকট্য অর্জনের পরমাকাঙ্ক্ষা সৃষ্টি হয়ে গেছে- আর তারা দু’আ, সত্যনিষ্ঠ জীবন ও আমলের মাধ্যমে সফলতার পথে ছুটছে।

এমএফ/এমএসআই