টেনিস বল রাখার পাত্রের দাম ৪২ কোটি টাকা!

ঢাকা, ২ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

টেনিস বল রাখার পাত্রের দাম ৪২ কোটি টাকা!

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৫১ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৪, ২০১৯

টেনিস বল রাখার পাত্রের দাম ৪২ কোটি টাকা!

না জেনে আমরা কতো কিছুই তো করি। অতো অমুল্যা জিনিস না বুঝে অবহেলায় ফেলে রাখি। যখন মুল্য বুঝে তখন চোখ চড়ক গাছ। ঠিক তেমনই

সপ্তদশ শতাব্দীতে ব্রোঞ্জের তৈরি একটি পাত্র। চীনে তৈরি পাত্রটি দেখতেও বেশ সুন্দর। সুইজারল্যান্ডের এক দম্পতি চীনে বেড়াতে গিয়ে সেটি সংগ্রহ করেছিলেন। তারা পাত্রটি টেনিস বল রাখার কাজে ব্যবহার করতেন। সম্প্রতি সেই পাত্রটি নিলামে বিক্রি হয়েছে প্রায় ৪২ কোটি টাকায়!

কিছুদিন আগে সুইজারল্যান্ডের এক নিলাম বিশারদের চোখে পড়ে ব্রোঞ্জের সেই পাত্রটি। তিনি ওই পরিবারকে বোঝান যে, এই পাত্রটি কেনো অমূল্য। তারপরই হংকংয়ে আয়োজিত এক নিলামে প্রদর্শিত হলে ৪৮ মিলিয়ন সুইস ফ্রাঙ্কে বিক্রি হয় পাত্রটি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৪১ কোটি ৭০ লাখ টাকারও বেশি।

সুইজারল্যান্ডের সেই দম্পতির কাছে থাকার সময় পাত্রটি খেলার অযোগ্য হয়ে পড়া টেনিস বল রাখার কাজে ব্যবহৃত হতো। তারা বিশ্বাস করতেন, নষ্ট টেনিস বল সেখানে রাখলে শুভ কিছু ঘটবে। তাই বাড়ির টেবিলে সেটি সাজিয়ে রাখতেন। কিন্তু নিলাম বিশারদের চোখ সেটিকে অমূল্য করে তোলে।

নিলাম বিশারদ ওই ব্যক্তি তার প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সেই পাত্র নিলামের ব্যবস্থা করেন। তার পরই সেটি কোটি টাকায় বিক্রি হয়। অবশ্য এর আগেও পাত্রটি নিলামে তুলেছিল ওই পরিবার। কিন্তু জার্মানির মিউজিয়াম ও লন্ডনের একটি নিলাম সংস্থা ওই পাত্রের ব্যাপারে অতটা উৎসাহী না হয়ে ফিরিয়ে দেয়।

সম্প্রতি হওয়া নিলামে পাত্রটি কিনেছে কলার অকশন নামের একটি সংস্থা। তারা বাকিদের মতো ভুল করেনি। কলার অকশনের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘যখন এটা তৈরি হয়েছিল তখন পৃথিবীর অন্যান্য স্থানে ব্রোঞ্জের উপর কাজের নিদর্শন খুব একটা দেখা যেত না। তাই এটি এত অমূল্য।’

ইসি/

 

কেনাকাটা: আরও পড়ুন

আরও