গলে রেকর্ড-বিশ্বরেকর্ডের ছড়াছড়ি

পরিবর্তন ডেস্ক / ৭:৪৬ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৬,২০১৬

টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের শ্রেষ্ঠত্বের ট্রফি স্টিভেন স্মিথ হাতে নেয়ার একদিন পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজ খেলতে নেমেছিল অস্ট্রেলিয়া। তবে লঙ্কানদের বিপক্ষে টানা দুই টেস্ট হেরে শীর্ষস্থান হারানো ঝুঁকিতে পড়েছে স্মিথের দল। পাল্লেকেলে টেস্টে হারের পর গল টেস্টে লঙ্কানদের কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া। অন্যদিকে টানা দুই ম্যাচ জিতে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই তিন ম্যাচ সিরিজ জিতে নিয়েছে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের দল।

গল টেস্টের প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার করা ২৮১ রানের জবাবে স্বাগতিক বোলারদের তোপের মুখে পড়ে মাত্র ১০৬ রানেই গুটিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। ১৭৫ রানের লিড নিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে দ্বিতীয় ইনিংসে ২৩৭ রানে অলআউট হয় লঙ্কানরা। ফলে অজিদের সামনে প্রায় অসম্ভব ৪১৩ রানের লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায়। সেটির পেছনে ছুটতে গিয়ে মাত্র ১৮৩ রানে গুটিয়ে গিয়ে ২২৯ রানের লজ্জাজনক হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে অজিরা। এর আগে প্রথম টেস্টে ১০৬ রানে হেরেছিল স্মিথের দল।

গলে শ্রীলঙ্কান বোলারদের একচ্ছত্র আধিপত্যে অসংখ্য রেকর্ড হয়েছে। নতুন রেকর্ড হওয়ার পাশাপাশি ভেঙে গেছে পুরনো কিছু রেকর্ডও। আসুন সংখ্যার আলোকে সেগুলোতে চোখ বুলানো যাক-

: এশিয়ার মাটিতে টানা আটটি টেস্ট হেরেছে অস্ট্রেলিয়া। কোনো বিদেশি দলের এশিয়াতে টানা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ম্যাচে হারার বাজে রেকর্ড এটি। ১৯৯৭ থেকে ২০০২ সালে এশিয়াতে টানা ১০টি টেস্টে হেরে লজ্জার রেকর্ডটি নিজেদের দখলে রেখেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সর্বশেষ ২০১১ সালে এশিয়ার মাটিতে টেস্টে জয় পেয়েছিল অজিরা। অস্ট্রেলিয়া সব মিলিয়ে এশিয়াতে গত ১০টি টেস্টে জয়ের মুখ দেখেনি। ১৯৭৯ থেকে ১৯৮২ সালে এশিয়ার মাটিতে রেকর্ড টানা ১২ টেস্টে জয় দেখেনি ক্যাঙ্গারুরা। এবার সেই বাজে রেকর্ডও হুমকির মুখে।

১৯৯৯: অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এর আগে সর্বশেষ ১৯৯৯ সালে টেস্ট সিরিজ জিতেছিল শ্রীলঙ্কা; সেটিও ঘরের মাটিতে। সেবার তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে জয় পায় লঙ্কানরা। অন্যদিকে ২০০৭-০৮ মৌসুমে মুরালি-ওয়ার্ন সিরিজ চালু হওয়ার পর প্রথমবারের মতো ট্রফি ঘরে তোলে দ্বীপ দেশটি।

: এশিয়ার মাটিতে এই নিয়ে টানা তৃতীয়বার টেস্ট সিরিজে পরাজয়ের মুখ দেখলো অস্ট্রেলিয়া। এর আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাকিস্তানের বিপক্ষে ২-০ ব্যবধানে এবং ২০১২-১৩ মৌসুমে ভারতের মাটিতে ৪-০ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজে বিধ্বস্ত হয়েছিল অজিরা। এই নিয়ে এশিয়ার মাটিতে সর্বশেষ ৬টি সিরিজের পাঁচটিতেই হেরে যায় ক্যাঙ্গারুরা।

: এর আগে এশিয়ার মাটিতে মাত্র দুবার গল টেস্টের চেয়েও বড় ব্যবধানে (রানের হিসেবে) পরাজয়ের মুখ দেখেছিল অস্ট্রেলিয়া। ২০১৪-১৫ মৌসুমে আবু ধাবি টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩৫৬ রানের বড় ব্যবধানে পরাজিত হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া; যেটি এশিয়ার মাটিতে রানের ব্যবধানে সবচেয়ে বড় পরাজয়। এছাড়া ২০০৮-০৯ মৌসুমে মোহালি টেস্টে ভারতের বিপক্ষে ৩২০ রানে হেরেছিল অজিরা।

১১: গল টেস্টের দুই ইনিংসে ১০ উইকেট নিয়ে দারুণ কীর্তি গড়েন শ্রীলঙ্কান স্পিনার দিলরুয়ান পেরেরা। ১১তম টেস্টে উইকেটের হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন দিলরুয়ান; যেটি শ্রীলঙ্কার হয়ে রেকর্ড। এর আগে অজন্তা মেন্ডিস ১২ ম্যাচে ৫০ উইকেটের মাইলফলক গড়ে এতদিন রেকর্ডটি তার দখলে রেখেছিলেন। শনিবার মেন্ডিসকে ছাড়িয়ে যান দিলরুয়ান।

: এর আগে কোনো শ্রীলঙ্কান খেলোয়াড় একই টেস্টে ১০ উইকেট ও কমপক্ষে একটি ফিফটি করার কীর্তি গড়তে পারেননি। গল টেস্টে ৮০ রান করার পাশাপাশি দুই ইনিংস মিলিয়ে ১০ উইকেট নেন দিলরুয়ান। প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে ১৬ রান করার পর দ্বিতীয় ইনিংসে সর্বোচ্চ ৬৪ রান করেন তিনি। অন্যদিকে প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেট পাওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে নেন ৬টি উইকেট। উপমহাদেশের খেলোয়াড়দের মধ্যে সাকিব আল হাসান, ইমরান খান, কপিল দেব ও আবদুল কাদিরের এই ডাবলসের কীর্তি রয়েছে।

৮৪: গল টেস্টের দুই ইনিংসে ৬ উইকেট নিয়ে দারুণ কীর্তি গড়েন শ্রীলঙ্কান স্পিনার রঙ্গনা হেরাথ। মুত্তিয়া মুরালিধরনের পর কোনো বোলার হিসেবে একটি ভেন্যুতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট লাভের কীর্তি গড়েন হেরাথ। গল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে এই নিয়ে ৮৪ উইকেট পেলেন লঙ্কান স্পিনার। তিনি ছাড়িয়ে যান বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিককে। হারারের স্পোর্টস ক্লাব মাঠে জিম্বাবুয়ের সাবেক পেসার নেন ৮৩ উইকেট। কোনো নির্দিষ্ট ভেন্যুতে সর্বোচ্চ টেস্ট উইকেট লাভের প্রথম তিনটি রেকর্ডই মুরালির দখলে। এই লঙ্কান গ্রেট কলম্বোর সিংহলীজ স্পোর্টস ক্লাব মাঠে ১৬৬, ক্যান্ডিতে ১১৭ এবং গলে নেন ১১১ উইকেট।

: দিলরুয়ান পেরেরা গল টেস্টের দুই ইনিংস মিলিয়ে ৯৯ রানে ১০ উইকেট নেন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কোনো টেস্টে এর চেয়ে ভালো বোলিং করেন মাত্র একজন লঙ্কান। ২০০৪ সালে একই ভেন্যুতে ২১২ রানের বিনিময়ে ১১ উইকেট নেন মুরালিধরন। এই দুজন ছাড়া অজিদের বিপক্ষে কোনো টেস্টে ১০ উইকেট নিতে পেরেছেন আর মাত্র একজন শ্রীলঙ্কান। ২০০৪ সালে কেয়ার্নসে উপুল চান্দানা ২১০ রানের বিনিময়ে ১০ উইকেট নিয়েছিলেন।

এমএআই/এটি

নিজটির লিঙ্ক : http://www.poriborton.com/sports/12787/গলে-রেকর্ড-বিশ্বরেকর্ডের-ছড়াছড়ি

প্রধান সম্পাদক : মোঃ আহসান হাবীব

Poriborton
Bashati Horizon, Apartment # 9-A, House # 21, Road # 17,Banani, Dhaka 1213 BD
Phone: +88 029821191, +88 01779284699
Website: http://www.poriborton.com
Email: report@poriborton.com
            editor@poriborton.com