লোকচক্ষুর আড়ালে এসপি বাবুল

এ এইচ এম ফারুক / ৪:৪২ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৮,২০১৬

স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যাকাণ্ড ও পরবর্তী নানা জটিলতার পর লোকচক্ষুর আড়ালে রয়েছেন এসপি বাবুল আক্তার। বর্তমানে তিনি কোথায় আছেন তা জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন পরিবারের একাধিক সদস্য।

পরিবার সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এসপি বাবুল পরিস্থিতি কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছেন। এ কারণে তিনি প্রকাশ্যে আসতে চাইছেন না। দ্রুতই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বলে আশাবাদী বাবুলের পরিবার।

চট্টগ্রামে ৫ জুন বাবুলের স্ত্রী মিতুকে বাসার অদূরে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করেন দুর্বৃত্তরা। এর বেশ কয়েকদিন পর বাবুল আক্তারকে ১৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করে ডিবি পুলিশ। ওই সময় স্ত্রী হত্যাকাণ্ডে বাবুল আক্তারের জড়িত থাকার বিষয়ে গুঞ্জন ওঠে। পুলিশের পক্ষ থেকে জিজ্ঞাসাবাদ ও বাবুল চাকরিতে না ফেরায় রহস্য দেখা দেয়। পরে অবশ্য জিজ্ঞাসাবাদের বিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি। ফলে অন্ধকারে রয়ে গেছে বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের অধ্যায়।

পুলিশ সদর দফতরের একটি সূত্রে জানা গেছে, জিজ্ঞাসাবাদের সময় বাবুল আক্তারের কাছ থেকে অব্যাহতিপত্র রাখা হয়েছে। তারপর থেকে তিনি নিজেও চাকরিতে ফেরেননি কিংবা তাকে ফেরানোর জন্য পুলিশ সদর দফতরের পক্ষ থেকে কোনো তাগাদাও দেওয়া হয়নি।

বাবুল আক্তারের এক সহকর্মী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, জানতে পেরেছি বাবুল আক্তারের কাছ থেকে অব্যাহতিপত্র নেওয়া হয়েছে। এখন বুঝতে পারছি না, বাবুল আক্তারকে চাকরিতে বহাল করা হবে নাকি অব্যাহতি দেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, এভাবে চুপিসারে সিদ্ধান্ত হলে পুলিশের মধ্যমসারির কর্মকর্তাদের মাঝে ক্ষোভ ও অসম্মান কাজ করবে। তাই উচিৎ হবে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে সত্যটা প্রতিষ্ঠিত করা ও সে অনুযায়ী আইনগত সিদ্ধান্ত নেওয়া।’

হত্যাকাণ্ডের কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, ‘অব্যাহতভাবে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে যে অভিযান চলছে, জঙ্গিদের দমন ও নিয়ন্ত্রণের জন্য আমাদের পুলিশ ফোর্স যেভাবে বীরত্বের সঙ্গে কাজ করছে, তাদের বিভ্রান্ত করার জন্য পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ডটি হয়েছে বলে আমরা মনে করছি।’

এদিকে বাবুলকে নিয়ে চিন্তা ও শঙ্কা মুক্ত হতে পারছেন না তার পরিবারের সদস্যরা। তার বাবা আবদুল ওয়াদুদ পরিবর্তন ডটকমকে জানান, বাবুল আক্তার ভালো আছে। তিনি গত শুক্রবারও ছেলের সাথে কথা বলেছেন। তবে বাবুল আক্তার কবে চাকরিতে ফিরবেন তা তিনি জানেন না।

তিনি বলেন, ‘আমরা শঙ্কামুক্ত হতে পারছি না। সবসময় একটা টেনশনে থাকি। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি আমার ছেলে নির্দোষ। সে সব সংকট কাটিয়ে উঠবে।’

বাবুল আক্তারের ছোট ভাই অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান লাবু পরিবর্তন ডটকমকে জানান, ঈদের ৫/৬ দিন আগে ঢাকায় একটি মাকের্টে তার ভাইয়ের সাথে শেষ দেখা হয়েছে। ‘বাবুল আকতার কেমন আছেন? কোথায় আছেন?’ জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে কোনো তথ্য দিতে রাজি হননি বরং বিব্রতবোধ করেন।

তবে তিনি কিছু গণমাধ্যমের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘আপনারা সাংবাদিকরা তো সবসময় সঠিক ভূমিকা পালন করেন না। যা লেখার তাও লেখেন, যা লেখার নয় তাও লেখেন।’

অপরদিকে পরিবর্তন ডটকমের সাথে সম্প্রতি আলাপকালে এসপি বাবুল আক্তারের শ্বশুর অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন দাবি করেছেন, তার মেয়ে হত্যায় জামাতা এসপি বাবুল আক্তারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। তিনি সঠিক তদন্তের মাধ্যমে আসল অপরাধীকে খুঁজে বের করার অনুরোধ জানিয়েছেন। 

মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘আমার মেয়ের বিয়ে হয়েছে প্রায় ১২ বছর হতে চলছে। এতদিনের সংসার, কোনোদিন শুনিনি তাদের ঝগড়া হয়েছে। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম বাবুলকে নিয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করছে। এটা ঠিক না। আমি অপনাদের হাতজোড় করে বলি এই মিথ্যা প্রচার বন্ধ করুন।’

মিতু হত্যাকাণ্ডে তদন্তের সর্বশেষ তথ্য জানতে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ (সিএমপি) কমিশনার ইকবাল বাহারের সাথে যোগাযোগ করা হলে সোমবার তিনি পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘মিতু হত্যা মামলায় নতুন কোনো অগ্রগতি নেই।’

সিএমপি কমিশনার জানান, মিতু হত্যায় জড়িত সন্দেহভাজনদের রিমান্ডে আনা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। সেখান থেকে নতুন কিছু তথ্য প্রাপ্তি ও অগ্রগতি আসতে পারে।

এসপি বাবুল আক্তার ও মিতু হত্যা বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য জানতে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হকের নাম্বারে যোগাযোগ করলেও তিনি রিসিভ করেননি।

এএফ/একে/এইচএসএম

নিজটির লিঙ্ক : http://www.poriborton.com/law-and-crime/10438/লোকচক্ষুর-আড়ালে-এসপি-বাবুল

প্রধান সম্পাদক : মোঃ আহসান হাবীব

Poriborton
Bashati Horizon, Apartment # 9-A, House # 21, Road # 17,Banani, Dhaka 1213 BD
Phone: +88 029821191, +88 01779284699
Website: http://www.poriborton.com
Email: [email protected]
            [email protected]