খবরের পরিবর্তে বন্ধুদের আপডেট বেশি দেখাবে ফেসবুক

ঢাকা, শনিবার, ২১ জুলাই ২০১৮ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৫

খবরের পরিবর্তে বন্ধুদের আপডেট বেশি দেখাবে ফেসবুক

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:০৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০১৮

print
খবরের পরিবর্তে বন্ধুদের আপডেট বেশি দেখাবে ফেসবুক

ইউজারদের ফেসবুকে ব্যয় করা সময়কে আরও অর্থবহ করে তুলতে বন্ধুবান্ধব ও আত্মীয়দের সঙ্গে তাদের যোগাযোগ বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে ফেসবুক। এজন্য বৃহস্পতিবার ফেসবুকের নিউজ ফিডে কিছু পরিবর্তন করার ঘোষণা দিলেন ফেসবুকের কর্ণধার মার্ক জাকারবার্গ।

একটি ব্লগ পোস্টে জাকারবার্গ জানান, ফেসবুক ইউজারদেরকে ‘অর্থবহ সামাজিক আদান প্রদান’ ও ‘প্রাসঙ্গিক কনটেন্ট’ দেখানোর প্রতি বেশি গুরুত্ব দেবে।

সামাজিক মাধ্যমটি বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও গণমাধ্যমের শেয়ার করা ভিডিও, ছবি ও পোস্ট- বা পাবলিক কনটেন্টের চেয়ে ইউজারদের কাছের মানুষদের যেকোনো আপডেটকে বেশি গুরুত্ব দেবে।

এই পরিবর্তনটির ফলে ফেসবুকে বিভিন্ন মিডিয়া হাউজের খবরের পোস্ট বা কনটেন্ট দেখানো উল্লেখযোগ্য হারে কমে যাওয়া শুরু করলে গণমাধ্যমগুলোর উপর তা বিশেষ প্রভাব ফেলবে।

গত সপ্তাহে জাকারবার্গ জানিয়েছিলেন, ২০১৮ সালে তিনি ফেসবুকের বিভিন্ন দুর্বলতা দূর করার জন্য কাজ করবেন। ২০১৭ সালে বিভিন্ন কারণে বিভিন্ন মহলে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিল সামাজিক মাধ্যমটি। এ বছর জাকারবার্গের লক্ষ্য হচ্ছে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটটিকে সমালোচনার ঊর্ধ্বে নিয়ে যাওয়া।

উল্লেখ্য, রাশিয়া ফেসবুকের বিজ্ঞাপন ব্যবহার করে ২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন প্রভাবিত করেছে বলে অভিযোগ উঠে গত বছর।

এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটির সাবেক কয়েক জন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা মুনাফার লোভে মানুষের মনস্তাত্ত্বিক বিভিন্ন  বৈশিষ্ট্যকে কাজে লাগানোর জন্য ফেসবুকের তীব্র সমালোচনা করেন।

২০১৬ সালে প্রথম যখন ফেসবুকের বিরুদ্ধে নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে সহায়তা করার অভিযোগ উঠে, তখন তা সরাসরি নাকচ করে দিয়েছিলেন জাকারবার্গ। কিন্তু ২০১৭ সালে সুর পরিবর্তন করে ফেসবুক। তারা জানায় নির্বাচনের সময় রাশিয়ার একটি সংস্থা ফেসবুকে ১ লাখ ডলার মূল্যের বিজ্ঞাপন দিয়ে বিতর্কিত রাজনৈতিক বক্তব্যকে উৎসাহিত করেছিল।

এরপর ডিসেম্বরে ফেসবুকের সাবেক একজন উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা জানান, নিস্ক্রিয়ভাবে ফেসবুকের দেখানো নিউজ ফিড ফলো করলে তা ইউজারদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপর মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে।

এই সমালোচনাটি স্বীকার করে নিয়ে, ফেসবুক জানায় ফেসবুকে অপিরিচিত মানুষের আপডেট নিয়মিত ফলো করলে তা ইউজারদের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে। এজন্য সবার উচিত নেটওয়ার্কিং সাইটে কাছের মানুষদের সঙ্গে যোগাযোগ বৃদ্ধি করা।

তবে ফেসবুক ইউজাররা নিজে থেকেই তাদের অভ্যেস বদলে এমন উদ্যোগ নাও নিতে পারেন। তাই সামাজিক মাধ্যমটিই এখন থেকে বিভিন্ন ভিডিও ও পোস্ট নিউজ ফিডের দেখানো কমিয়ে দিয়ে ইউজারদের বন্ধু ও পরিবারের সদস্যদের পোস্ট দেখাবে।

গার্ডিয়ান পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়, এসব পরিবর্তন নিউজ মিডিয়াকে বিশেষভাবে প্রভাবিত করতে পারে। সামাজিক মাধ্যমগুলোর নিউজ ফিডে বিভিন্ন খবর যেভাবে প্রদর্শিত হয়ে আসছিল, অনেক মিডিয়া সেই অনুযায়ী তাদের খবর সম্পাদনা ও সোশ্যাল সাইটে প্রচারের কৌশল গ্রহণ করেছিল। কিন্তু ফেসবুকের নিউজ ফিডে পরিবর্তন করা হলে মিডিয়াগুলোকেও কৌশল বদলাতে হবে।

গত অক্টোবরে ফেসবুক পরীক্ষামূলকভাবে বিভিন্ন পাবলিক কনটেন্ট ইউজারদের নিউজ ফিড থেকে সরিয়ে নিয়ে আলাদা একটি ‘এক্সপ্লোর ট্যাব’র নিচে দেখানো শুরু করে।

ফেসবুক নিউজ ফিডের প্রধান কর্মকর্তা অ্যাডাম মোসেরি জানান, বর্তমান পরিবর্তনে ওই পরীক্ষার মত বাড়াবাড়ি করা হবে না। ইউজারদের নিউজ ফিডে কিছু পাবলিক কনটেন্ট দেখানো হবে।

মোসেরি আরও বলেন, ‘এসব আপডেটের কারনে বিভিন্ন ফেসবুক পেজ তাদের পোস্ট ও ভিডিওর লাইক-শেয়ারের পরিমাণ কমে যেতে পারে। বিভিন্ন পেজকে এই পরিবর্তনগুলো বিভিন্ন ভাবে প্রভাবিত করবে। একটি ফেসবুক পেইজ কি ধরনের কনটেন্ট শেয়ার করা হয় ও সেগুলোর প্রতি মানুষ কীভাবে প্রতিক্রিয়া দেখায় তার উপর নির্ভর করবে নিউজ ফিডের পরিবর্তনের প্রভাব।’

এমআর/এমএসআই

 
.



আলোচিত সংবাদ