যেসব ফোনে আর ব্যবহার করা যাবে না হোয়াটস অ্যাপ

ঢাকা, শনিবার, ২১ জুলাই ২০১৮ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৫

যেসব ফোনে আর ব্যবহার করা যাবে না হোয়াটস অ্যাপ

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:৩২ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৭

print
যেসব ফোনে আর ব্যবহার করা যাবে না হোয়াটস অ্যাপ

নববর্ষের সন্ধ্যা থেকে পুরনো অনেকগুলো ফোন সেটে আর হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে না। ফলে অ্যাপটি ব্যবহার করা চালিয়ে যেতে চাইলে ফোন বদলাতে বাধ্য হবে লাখ লাখ মানুষ।

বর্তমানে ১০০ কোটিরও বেশি মানুষ মেসেজ পাঠানোর জনপ্রিয় অ্যাপটি ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু, হোয়াটস অ্যাপ-এর প্রযুক্তি উন্নত করার ফলে এদের অনেককেই নতুন ফোন সেট কিনতে হবে।

ব্লগে প্রকাশিত একটি পোস্টে হোয়াটস অ্যাপ জানিয়েছে, '২০০৯ সালে যখন আমরা অ্যাপটি চালু করি তখনকার ফোনসেটগুলো এখনকার থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন ধরনের ছিল।'

তখন অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর চালু করার পর মাত্র কয়েক মাস অতিবাহিত হয়েছিল। ওই সময়ে বিক্রি হওয়া স্মার্ট ফোনের ৭০ শতাংশেই ব্ল্যাকবেরি ও নোকিয়ার তৈরি অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হতো।

তখন গুগল, অ্যাপল ও মাইক্রোসফটের তৈরি ব্যবহার করা হতো মাত্র ২৫ শতাংশ স্মার্টফোনে। কিন্তু বর্তমানে ৯৯.৫ শতাংশ স্মার্টফোনে গুগল, অ্যাপল ও মাইক্রোসফটের অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়।

গত বছর হোয়াটস অ্যাপ জানিয়েছিল আইফোন, অ্যানড্রয়েড ফোন ও উইন্ডোজ ফোনের কয়েকটি মডেলসহ বেশ কিছু ফোনে অ্যাপটি ব্যবহার করা যাবে না।

এবার ২০১৮ সালের প্রথম দিন থেকে নতুন আরও কিছু ফোনে ব্যবহার করা যাবে না। যেসব ফোনে ব্ল্যাকবেরির অপারেটিং সিস্টেম ব্ল্যাকবেরি ওএস ও ব্ল্যাকবেরি ১০ এবং উইন্ডোজ ফোন ৮.০ ব্যবহার করা হবে, সেগুলোতে কাজ করবে না হোয়াটস অ্যাপ।

আগামী বছরের ডিসেম্বর ৩১ তারিখের পর থেকে নোকিয়া এস৪০ সেটগুলোতেও ব্যবহার করা যাবে না অ্যাপটি। ২০২০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি থেকে অ্যানড্রয়েড ২.৩.৭ বা তার চেয়ে পুরনো ভার্সনেও বন্ধ হয়ে যাবে হোয়াটস অ্যাপ।

হোয়াটস অ্যাপ নির্মাতারা জানিয়েছেন, এ সিদ্ধান্তের ফলে অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত হলেও এতে সবার জন্যই অ্যাপটি ব্যবহার করা সুবিধাজনক হবে।

এমআর/এএল

 
.



আলোচিত সংবাদ