যে ইমোজি সরাতে হোয়াটসঅ্যাপকে আইনি নোটিশ

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৮ | ৮ কার্তিক ১৪২৫

যে ইমোজি সরাতে হোয়াটসঅ্যাপকে আইনি নোটিশ

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:৩৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৭

যে ইমোজি সরাতে হোয়াটসঅ্যাপকে আইনি নোটিশ

ইনস্ট্যান্ট মেসেজ পাঠানোর সার্ভিস হোয়াটসঅ্যাপ থেকে মধ্যমা (হাতের মধ্যম আঙ্গুল) ইমোজি সরানোর জন্য সাইটটিকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছে ভারতের একজন আইনজীবী। মঙ্গলবার পাঠানো নোটিশে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে চ্যাট করার অ্যাপটি থেকে মধ্যমা প্রদর্শনের জন্য ব্যবহৃত ইমোজি সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে।

গুরমিত সিং নামের ওই আইনজীবী এনডিটিভিকে জানান, কাউকে মধ্যমা দেখানো কেবল অবৈধই নয়, এটি অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ অঙ্গভঙ্গি। ভারতে এটিকে অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হয়।

আইনি নোটিশে বলা হয়, ভারতের পেনাল কোডের ৩৫৪ ও ৫০৯ ধারা অনুযায়ী মহিলাদেরকে অশ্লীল, নোংরা ও আক্রমণাত্মক অঙ্গভঙ্গি দেখানো অপরাধ। একারনে এখানে অশ্লীল, কুরুচিপূর্ণ ও আক্রমণাত্মক অঙ্গভঙ্গি করা অবৈধ।

অন্যান্য দেশের মধ্যে, আয়ারল্যান্ডের একটি অনুযায়ী আইন অনুযায়ী সেখানেও মধ্যমা প্রদর্শন করা অবৈধ বলে উল্লেখ করা হয় নোটিশে।

‘আপনাদের অ্যাপে মধ্যমার ইমোজি ব্যবহারের সুযোগ করে দিয়ে আপনারা (হোয়াটস অ্যাপ ইনকর্পোরেটেড) এই অশ্লীল, কুরুচিপূর্ণ ও আক্রমণাত্মক অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শনের অপরাধে সরাসরি সহায়তা করছেন’ নোটিশে অভিযোগ করা হয়।

এসব কারণে ১৫ দিনের মধ্যে মেসেজ পাঠানোর অ্যাপটি থেকে মধ্যমা দেখানো হয় এমন সব ইমোজি, চরিত্র বা ছবি সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে। হোয়াটসঅ্যাপ তা করতে ব্যর্থ হলে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে মামলা করা হবে জানান গুরমিত সিং।

উল্লেখ্য, ইমোজি এক ধরনের ডিজিটাল ছবি। চ্যাট করার সময় খুব ছোট আকারের এই ছবিগুলো ব্যবহার করে ইউজাররা তাদের মনের ভাব প্রকাশ করে থাকেন।

এমআর/এমএসআই