আমের রাজ্যে সম্ভাবনাময় লটকন (ভিডিও)

ঢাকা, ১৪ মে, ২০১৯ | 2 0 1

আমের রাজ্যে সম্ভাবনাময় লটকন (ভিডিও)

আব্দুর রব নাহিদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৫:৩৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৩, ২০১৯

আমের রাজ্য চাঁপাইনবাবগঞ্জে নতুন অতিথি হয়েই এসেছে লটকন। এ জেলার আম বাগানগুলোর মাঝে লটকন গাছ লাগানোর সুযোগকে নতুন সম্ভাবনা হিসাবে দেখছেন ফল গবেষকরা। অনেকেই আগ্রহ নিয়ে লাগাচ্ছেন লটকন গাছ। এতে করে জেলার কৃষি অর্থনীতি বাড়বে কয়েকগুণ, যা কয়েকশ কোটি টাকা হতে পারে বলে ধারণা গবেষকদের।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের হর্টিকালচার সেন্টারের থাকা লটকন গাছগুলোতে এখন থোকায় থোকায় ঝুলে আছে পাকা লটকন। হলদে বর্ণ ধারণ করা ফলগুলো দেখলে যে কারও খেতে মন চাইবে।

মঙ্গলবার দুপুরে একটি গাছের ফল সংগ্রহের পর পাওয়া গেল প্রায় ২০ কেজির মতো লটকন। লটকন গাছ লাগানোর ৩ বছরের মাথায় ফল দেয়া শুরু করে, বাজারে প্রতি কেজি লটকন ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়।

হর্টিকালচার সেন্টারের উপ-পরিচালক উদ্যানতত্ববিদ সাইফুর রহমান পরিবর্তন ডটকমকে জানান, লটকন গাছ আধো আলো আধো ছায়া, একটু স্যাঁতসেঁতে জায়গায় হয়। চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিশাল বিশাল আম বাগান আছে, সেখানে লটকন চাষের বড় সম্ভবনা রয়েছে।

আরো একটা বিষয় আম ও লটকন একই সময়ই পাকে। তাই একই সাথে আম ও লটকনের যত্ন নেয়া সম্ভব।

লটকন চাষ খুবই সহজ, গাছ শুধু লাগিয়ে রাখলেই চলে, এতে খুব একটা রোগবালাই হয়না।

উদ্যানতত্ববিদ সাইফুর রহমান লটকন চাষের সম্ভাবনার কথা বলতে গিয়ে বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে আম বাগানে লটকনের চাষ সম্প্রসারণ করা গেলে বাগান মালিকদের বাড়তি আয় হবে। সারা জেলায় যে পরিমাণ লটকন চাষের সুযোগ আছে তা কাজে লাগানো গেলে, কৃষি জেলার অর্থনীতিতে ২০০ কোটি টাকা শুধু লটকন থেকেই যুক্ত হতে পারে। এজন্য আমরা লটকনের চারা তৈরী ও চাষে সবাইকে উৎসাহিত করছি।

লটকন একটি পুষ্টিকর ফল উল্লেখ করে সাইফুর রহমান বলেন, এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ পাওয়া যায়, এটা খেতে টক মিষ্টি। যা আমাদের পুষ্টির চাহিদা পূরণে কাজে আসবে।

এএসটি/

 

ফিচার : আরও পড়ুন

আরও