ভোটের মাঠ সংঘাতমুক্ত রাখতে কড়া নিরাপত্তা

ঢাকা, বুধবার, ১৬ জানুয়ারি ২০১৯ | ৩ মাঘ ১৪২৫

ভোটের মাঠ সংঘাতমুক্ত রাখতে কড়া নিরাপত্তা

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৯:৩১ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৮

ভোটের মাঠ সংঘাতমুক্ত রাখতে কড়া নিরাপত্তা

রাজধানীতে ভোটের মাঠ সংঘাতমুক্ত রাখতে সুদৃঢ় নিরাপত্তা বলয়ের অংশ হিসেবে নগরীজুড়ে চারটি কন্ট্রোল রুম স্থাপন করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। এই কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যেকোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় সোয়াট ও বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট প্রস্তুত থাকবে।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর কাকরাইলে উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে সুস্পষ্ট নিরাপত্তাজনিত কোনো হুমকি না থাকলেও অতীত অভিজ্ঞতার আলোকে নিরাপত্তা ছক সাজানো হয়েছে। ভোটের পরিবেশ সংঘাতমুক্ত ও আনন্দমুখর রাখতে নগরীজুড়ে সুসংগঠিত সুদৃঢ় নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নগরীর প্রতিটি কেন্দ্র পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন থাকবে। ৪-৫টি কেন্দ্র মিলিয়ে একটি করে টিম মোবাইল ডিউটিতে থাকবে। মিরপুর, আব্দুল গণি রোড, গুলশান ও রাজারবাগ পুলিশ লাইনে অস্থায়ী কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। যার মাধ্যমে সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজধানীজুড়ে পুলিশের পাশাপাশি সেনাবাহিনী, বিজিবি, নৌবাহিনী, র‌্যাব সদস্যরা টহল ডিউটিতে রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, সকল সংস্থা মিলে ভোটের নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিত করা হবে, যেন কোন ধরনের সংঘাত না হয়। ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে যাবেন এবং ভোট শেষে বাড়ি ফিরবেন, তাদের নিরাপত্তায় যা যা ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন তার সব ব্যবস্থাই করা হয়েছে। গোয়োন্দা ও আইইডি বিভাগের কর্মকর্তারা কাজ করে যাচ্ছেন। অগ্রিম তথ্যের ভিত্তিতে নিরাপত্তাজনিত কোন হুমকি থাকলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান কমিশনার।

সাইবার সিকিউরিটি বিভাগ সার্বক্ষণিক তৎপর রয়েছে জানিয়ে আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ভার্চুয়াল জগতে যেকোন ধরনের হুমকি, গুজব প্রতিরোধে তারা সবসময় সচেষ্ট রয়েছেন।

নির্বাচনের প্রতিটি প্রার্থী ও এজেন্টদের নিরাপত্তায় বিশেষ ব্যবস্থা থাকবে জানিয়ে কমিশনার বলেন, সব ধরনের ভীতির ঊর্ধ্বে থেকে সমগ্র নগরজুড়ে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে। গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চেকপোস্ট স্থাপনের পাশাপাশি টহল টিম কাজ করবে। সোয়াট, বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ও ডগ স্কোয়াড সার্বক্ষণিক প্রস্তুত থাকবে। যেকোন সময়ে যেকোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় পরিপূর্ণ প্রস্তুতির কথাও জানান তিনি।

পিএসএস/এসবি