জনসনের ইসলাম-বিদ্বেষী বক্তব্যের পক্ষে মি. বিন

ঢাকা, বুধবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৮ | ৮ কার্তিক ১৪২৫

জনসনের ইসলাম-বিদ্বেষী বক্তব্যের পক্ষে মি. বিন

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:০৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৮

জনসনের ইসলাম-বিদ্বেষী বক্তব্যের পক্ষে মি. বিন

ইসলাম-বিদ্বেষী মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে থাকা যুক্তরাজ্যের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনের পক্ষ নিলেন মি. বিন খ্যাত জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা রোয়ান অ্যাটকিনসন।

অ্যাটকিনসন বলেন, ‘ধর্ম নিয়ে সারাজীবন কৌতুক ও মজা করে আসা আমি মনে করি, বোরকা নিয়ে জনসনের মন্তব্যও অনুরূপ হাস্যরসপূর্ণ কথা ছিল।’

শুক্রবারে প্রকাশিত দ্য টাইমস পত্রিকায় এক চিঠিতে এমন মতামত জানান মি. বিন।

জনসন গত সপ্তাহে একটি মতামত কলামে লিখেন, মুখ ঢেকে বোরকা পরা মুসলিম নারীদের দেখতে অনেকটা ‘ব্যাংক ডাকাতের’ মতো। তাদেরকে ‘চিঠিরবাক্স’ বলেও মন্তব্য করে ডানপন্থী এই ব্রিটিশ রাজনীতিক।

জনসনের বিরুদ্ধে ইসলাম-বিদ্বেষের অভিযোগ আনা হলে তিনি তা অস্বীকার করেন। সেইসাথে এজন্য ক্ষমা চাওয়ার বিষয়েও সম্মত হননি তিনি। এর মাধ্যমে দলের আচরণবিধি ভঙ্গ করেছেন কিনা সে জন্য কনজারভেটিভ পার্টির তদন্তের মুখোমুখি হতে পারেন তিনি।

অ্যাটকিনসন বলেন, ‘এটা আসলে মানুষকে হাসানোর জন্য একটা যথার্থ কৌতুক ছিল। জনসন এজন্য ক্ষমা চান আর না চান, কিছুদিন এ নিয়ে হয়তো আলোচনা থাকবে।’

জনসনের কৌতুক করে খারাপ কিছু বলেননি জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘ধর্ম নিয়ে যে কোনো কৌতুকই অপরাধ।’

এদিকে জনসনের বক্তব্য নিয়ে দলের ভেতরে-বাইরে সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে-সহ দলের অনেক সদস্যই তাকে ক্ষমা চাওয়ার অনুরোধ করেন।

মে জানান, তার এ মন্তব্যে যদি দলের আচরণবিধি লঙ্ঘন হয়, তাহলে তাকে দল থেকে বহিষ্কারও করা হতে পারে।

প্রসঙ্গত, ব্রেক্সিট ইস্যুতে একমত হতে না পারায় বরিস জনসন গত জুলাইয়ে মে’র মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন। সূত্র: ডেইলি সাবাহ।