যে কারণে ডায়েটে রাখবেন গ্রিন স্মুদি

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ | ৫ শ্রাবণ ১৪২৫

যে কারণে ডায়েটে রাখবেন গ্রিন স্মুদি

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:০৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৪, ২০১৮

print
যে কারণে ডায়েটে রাখবেন গ্রিন স্মুদি

নানা কারণেই দৈনন্দিন খাদ্যতালিকায় সবুজ স্বাস্থ্যসম্মত স্মুদি রাখা হয়। আপনিও ডায়েটে গ্রিন স্মুদি রাখতে পারেন। ডায়েটে গ্রিন স্মুদি রাখার উল্লেখযোগ্য ৪টি কারণ তুলে ধরা হলো-

নানা কারণেই দৈনন্দিন খাদ্যতালিকায় সবুজ স্বাস্থ্যসম্মত স্মুদি রাখা হয়। আপনিও ডায়েটে গ্রিন স্মুদি রাখতে পারেন। ডায়েটে গ্রিন স্মুদি রাখার উল্লেখযোগ্য ৪টি কারণ তুলে ধরা হলো-

পর্যাপ্ত ফল সবজি: অস্ট্রেলিয়ার সরকার ডায়েটারি গাইডলাইনে দৈনিক পাঁচ প্রকারের সবজি এবং দুটি ফল রাখার পরামর্শ দিয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রে সংখ্যার চেয়ে পরিমাণের দিকে গুরুত্ব দেয়া হয়। তারা বয়স ও লিঙ্গ অনুযায়ী দৈনিক দেড় থেকে দুই কাপ ফল এবং দুই থেকে আড়াই কাপ সবজি ডায়েটে রাখার কথা বলছেন। প্রতিদিন এই পরিমাণ সবজি ও ফল খাওয়া আসলেই একটু কঠিন ব্যাপার বিশেষ করে যাদের দিনের বেশির ভাগ বাইরে থাকতে হয়। এক্ষেত্রে সমাধান হিসেবে ডায়েটে গ্রিন স্মুথি রাখতে পারেন। এতে স্পিনাচ, আপেল, কলা, বেরি ও কপির মতো স্বাস্থ্যসম্মত উপকরণ রয়েছে। 

দ্রুত এবং সহজে তৈরি করা যায়:  অন্যান্য খাদ্যের চেয়ে স্মুদি তৈরি তুলনামূলকভাবে অনেক সহজ এবং ঝামেলা মুক্ত। এতে রেসিপি ফলো করার প্রয়োজন পড়ে না। নিজের মতো করে সবকিছু উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে দিয়ে মিক্স করলেই তৈরি হবে যাবে। পুষ্টি এবং স্বাদও পাবেন প্রয়োজন মতো।

সস্তা: একসঙ্গে বিভিন্ন ধরনের অনেকগুলো উপকরণ মেশানো হয় স্মুদিতে। এ কারণে খুব কম খরচে এটি তৈরি করা যায়। যদিও রেস্টুরেন্টে ব্যবসায় লাভের কারণে দামটা বেশি নেওয়া হয়। কিন্তু আপনি যখন বাড়িতে তৈরি করবেন তুলনামূলকভাবে কম খরচও হবে এবং এটি স্বাস্থ্যসম্মতও হবে।

সিজনাল ফল ও সবজি দিয়ে স্মুদি তৈরি করতে পারেন। এতে খরচ কম পড়বে এবং টাটকাও হবে। ব্লেন্ডারটাও যে দামি হতে হবে সেটাও নয়। নিত্য ব্যবহারের জন্য সেটা তুলনামূলক কম মূল্যের ব্লেন্ডার বাজারে পাওয়া যায়। 

ফাইবার যোগ হয়: ডায়েটে গ্রিন স্মুদি রাখলে ফাইবারের চাহিদা পূরণ হবে। এর সঙ্গে পাবেন প্রচুর পুষ্টি। আপনি জুস পছন্দ না করলে সবজি ও ফল ব্লেন্ডার করার পর আঁশগুলো ফেলে না দিয়ে জুসের সঙ্গে মিক্স করে নিতে পারে। একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের (১৮ বছরের উপরে) দৈনিক কমপক্ষে ৩০ গ্রাম ফাইবার, নারীদের ক্ষেত্রে ২৫ গ্রাম প্রয়োজন পড়ে। সবজি এবং ফলের শরীর থেকেই ফাইবার পাওয়া যায়। এ কারণে ব্লেন্ডার করার সময় সবজি এবং ফলের খোসা ফেলে দেবেন না।

বিএইচ/

 
.



আলোচিত সংবাদ