আকাশে তীব্র বেগে ছুটে যায় ইউএফও (ভিডিও)

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮ | ৪ শ্রাবণ ১৪২৫

আকাশে তীব্র বেগে ছুটে যায় ইউএফও (ভিডিও)

কে বি আনিস ৫:০২ অপরাহ্ণ, জুন ১৪, ২০১৮

print
আকাশে তীব্র বেগে ছুটে যায় ইউএফও (ভিডিও)

যুক্তরাষ্ট্রে ১০ জুন রাতে ঘটনাটি ঘটে! দেশটির ওয়াশিংটন রাজ্যের আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ ক্যামেরায় হঠাৎই দেখা যায় অদ্ভুত আলোর এক রেখাকে। মনে হয়, ভূমি থেকে আকাশের দিকে কোনো কিছু তীব্র বেগে ছুটে যাচ্ছে।

প্রথম দেখায় মনে হয়েছিল যেন কোনো রকেট মহাকাশে পাড়ি দিচ্ছে। কিন্তু সংস্থার কাছে এমন কোনো তথ্য ছিল না। ফলে বেজায় অবাক হন সেখানকার কর্মরত ব্যক্তিরা।

সংস্থার কর্মীরা খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, অদ্ভুত আলোর রেখাটি স্থানীয় উইডবে দ্বীপ থেকে উঠেছে। কিন্তু সেই দ্বীপ থেকে আবার রকেট উড়াবে কারা?

বিস্ময় তো কমেই না, বরং বৃদ্ধি পেতে থাকে। সংস্থার কেউ কেউ আবার সেটিকে ক্ষেপণাস্ত্র বলেও সন্দেহ প্রকাশ করেন।

তারা যে বেশ অবাক হয়েছেন তা সংস্থার ফেসবুক পাতাতেও প্রকাশ করা হয়। বলা হয়, রাতের ক্যামেরায় এক অদ্ভুত আলোর রেখা ধরা পড়েছে। দেখে মনে হচ্ছে উইডবে দ্বীপ থেকে কারা যেন বিশাল আকারের ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে।

কিন্তু ভিডিওটি পরীক্ষা করে ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়ুমণ্ডলীয় বিজ্ঞান অনুষদের সদস্য প্রফেসর ক্লিফ মাস জানান, ‘এটিকে কোনো ভাবেই ক্ষেপণাস্ত্র বলে মনে হচ্ছে না।’ তাহলে?

কেউ কেউ আবার সেই আলোর রহস্য প্রসঙ্গে উল্কাপাতের কথাও টেনে আনেন। কিন্তু উল্কা তো আকাশ থেকে মাটিতে ঝড়ে পড়ে। আর অদ্ভুত আলোটি মাটি থেকে উড়েছে আকাশে।

সংস্থার কর্মীরা বিষয়টি খতিয়ে দেখতে উইডবি দ্বীপে অবস্থিত এয়ার স্টেশনে খোঁজ নেন। কিন্তু সেখানে এমন কোনো ঘটনার কথা তারা জানতে পারলেন না।

সেখানে আদতে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের কোনো ব্যবস্থাই নেই। অনলাইনেও রকেট কিংবা ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের কোনো তথ্য কারও নজরে পড়ে না। ফলে সন্দেহের তীর ভিনগ্রহের যান বা ইউএফও’র দিকে যেতে থাকে।

ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম তো বটেই সংবাদমাধ্যমেও প্রকাশ পায়। অনেকেই আলোর রেখার পেছনে ভিনগ্রহের অজানা যানের সম্পৃক্ততা থাকতে পারে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেন।

তবে যারা ভিনগ্রহের বুদ্ধিমান প্রাণীর অস্তিত্বে বিশ্বাস রাখেন না, তারা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোর রেখাটিকে সাজানো নাটক বলে চালানোর চেষ্টা করেন। কেউ কেউ আবার একে মার্কিন গোপন পরিকল্পনার অংশ কোনো রকেট বলেও সন্দেহ প্রকাশ করেন।

কিন্তু রহস্য রহস্যই থেকে গেছে। এখন পর্যন্ত মার্কিন কর্তৃপক্ষ এসম্পর্কে কোনো মন্তব্য করেনি।

ভিডিও

কেবিএ

 
.



আলোচিত সংবাদ