পান বাহার আমাকে ঠকিয়েছে: পিয়ার্স ব্রসনান

ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮ | ৭ শ্রাবণ ১৪২৫

পান বাহার আমাকে ঠকিয়েছে: পিয়ার্স ব্রসনান

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:৪৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৫, ২০১৮

print
পান বাহার আমাকে ঠকিয়েছে: পিয়ার্স ব্রসনান

ভারতীয় একটি মাউথ ফ্রেশনার বা মুখ-সুগন্ধি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ করেছেন ব্রিটিশ অভিনেতা পিয়ার্স ব্রসনান।

ভারতীয় কর্তৃপক্ষকে তিনি জানান, প্রতিষ্ঠানটি মিথ্যে বলে তাকে বিজ্ঞাপনে অভিনয়ের জন্য রাজি করিয়েছিল।

আসক্তি তৈরি করে এমন তামাকজাত পণ্য পান বাহারের বিজ্ঞাপনে কেন তিনি কাজ করেছেন, কর্তৃপক্ষ তা জানতে চাইলে ব্রসনান এই অভিযোগ করেন।

ব্রসনান ভারতের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে বলেন, পান বাহার প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান অশোক অ্যান্ড কোম্পানি তাদের পণ্যের ক্ষতিকারক দিক সম্পর্কে অবহিত করেনি।

তবে ব্রসনানের অভিযোগের বিষয়ে পান বাহার প্রস্তুতকারকরা কোনো বক্তব্য দেয়নি।

কিন্তু, ২০১৬ সালে তারা বিবিসিকে জানিয়েছিল তাদের পণ্যে কোনো তামাক নেই। ভারতীয় আইনে সব ধরনের তামাকজাত পণ্যের বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ।

দিল্লির স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা এসকে অরোরা বলেন, ভারত সরকারকে দেয়া লিখিত বক্তব্যে ব্রসনান নিশ্চিত করেছেন ওই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তার আর কোনো সম্পর্ক নেই।

পান বাহারের বিজ্ঞাপনটি প্রচারিত হওয়ার পরপরই ২০১৬ সালে ব্রসনান অভিযোগ করেন, তার ছবি অবৈধভাবে ওই বিজ্ঞাপনে ব্যবহার করা হয়েছে। ক্যান্সার সৃষ্টি করে এমন পণ্যের প্রচারণায় অংশ নেয়ায় বহু ভারতীয় তার তীব্র সমালোচনা করেন।

প্রতিবাদ সত্ত্বেও বিজ্ঞাপনটি বিভিন্ন টিভি ও পত্রিকায় প্রচার করা হচ্ছে।

পান বাহার মূলত তামাক, সুপারি গুঁড়ো, চুন, লবঙ্গসহ বিভিন্ন জিনিসের সংমিশ্রণে তৈরি পান মশলা।

পিপল ম্যাগাজিনকে ব্রসনান বলেন, তামাক বা অন্য কোনো ক্ষতিকারক পদার্থ নেই এমন ‘ব্রেথ ফ্রেশনার’ অর্থাৎ নিঃশ্বাসকে সতেজ করার পণ্যের বিজ্ঞাপন তৈরির জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। পান বাহারে তামাক থাকার কথা তিনি জানতেন না।

এমআর/আইএম

 
.



আলোচিত সংবাদ