আমেরিকায় নকল আইফোন, আইপ্যাড বেচে মিলিয়নেয়ার চীনা নাগরিক

ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

আমেরিকায় নকল আইফোন, আইপ্যাড বেচে মিলিয়নেয়ার চীনা নাগরিক

পরিবর্তন ডেস্ক ৫:৩৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০১৮

আমেরিকায় নকল আইফোন, আইপ্যাড বেচে মিলিয়নেয়ার চীনা নাগরিক

গত কয়েক বছরে মাঝেমধ্যেই নকল অ্যাপল ডিভাইস বাজারে দেখা গেছে। কিন্তু খোদ যুক্তরাষ্ট্রের বাজারেই এগুলো ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছিল, তা কেউ সন্দেহ করেনি। কিন্তু সম্প্রতি সেখানে বসবাসরত চীনের একজন নাগরিক স্বীকার করেছেন, তিনি ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা নকল আইফোন ও আইপ্যাড বিক্রি করে বেশ ভালো টাকা কামিয়েছেন।

জিয়ানহুয়া লি ছাত্র ভিসা নিয়ে আমেরিকায় বসবাস করছিলেন। তার বিরুদ্ধে নকল অ্যাপল ডিভাইস বিক্রির অভিযোগ আনা হলে তিনি তার দোষ স্বীকার করে নেন।

লি জানান, তিনি ২০০৯ সাল থেকে ২০১৪ পর্যন্ত আমেরিকায় নকল আইফোন ও আইপ্যাডসহ ৪০ হাজার যন্ত্র পাচার করে নিয়ে গিয়ে বিক্রি করেছেন।

শুধু পাচার নয়, সেগুলো বিক্রি করে লি ও তার দলের আয়ের পরিমাণও অবিশ্বাস্য। নকল যন্ত্রগুলো তারা বিক্রি করেছেন ১.১ মিলিয়ন ডলারে। লি’র সহযোগীরাও ইতিমধ্যে তাদের দোষ স্বীকার করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ জানিয়েছে, লি’র দল তাদের খুব সতর্কতার সাথে কর্তৃপক্ষের চোখকে ফাঁকি দিয়েছে। তারা নকল যন্ত্রগুলো পাঠাতো এক শিপমেন্টে আর সেগুলোর উপরে লাগানোর জন্য নকল লেবেল পাঠাতো আরেক শিপমেন্টে।

অবৈধ পথে আয় করা অর্থের উৎস লুকাতেও খুব সতর্কতার সাথে তারা টাকার লেনদেন করত।

এই ধরনের কর্মকাণ্ড পৃথিবীজুড়েই হয়ে থাকে। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রে এমন বড় ধরনের নকলের কারবার ধরা পড়ার ঘটনা বিরল। কিন্তু, অ্যাপলের মত অত্যন্ত ব্যয়বহুল বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নকল পণ্য অনেক কম দামে পাওয়া যাওয়ায় ক্রেতারা এসবের প্রতি আগ্রহী থাকে। একারণে এসব নকল পণ্য একেবারে নির্মূল করা প্রায় অসম্ভব।

লি’র সাজা ঘোষণা করা হবে আগামী ৩০ মে।

এমআর/এমএসআই