দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির চক্রান্ত চলছে

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির চক্রান্ত চলছে

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৫:৪৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৯, ২০১৯

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির চক্রান্ত চলছে

একটি চিহ্নিত মহল পেঁয়াজ সিন্ডিকেট করে রেখে জনগণের পেটে লাথি মেরে এবং দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করতে চাইছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম।

মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের নিয়মিত সভায় তিনি এসব বলেন।

নাসিম বলেন, ‘আমাদের দেশে ক্ষুধা নিয়ে রাজনীতির করার দৃষ্টান্ত রয়েছে। কিছু লোক সাধারণ মানুষের ক্ষুধা নিয়ে রাজনীতিতে মেতে ওঠে। ক্ষুধার রাজনীতি থেকে দেশের জনগণকে সর্তক থাকতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘একটি চিহ্নিত মহল পেঁয়াজ সিন্ডিকেট করে রেখে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাইছে। সরকার তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছে। এজন্য দাম কমে এসেছে। কিন্তু এই চিহ্নিত মহলকে ছাড় দেয়া যাবে না। ওই চক্রান্তকারীরা এখন আবার চালের দাম বাড়ানোর পাঁয়তারা করছে।’

যারা রাজনীতিতে ব্যর্থ, আন্দোলনে ব্যর্থ, তারা আবরারের হত্যার বিষয়ে ভর করে ফায়দা নিতে আবারও চক্রান্ত করছে উল্লেখ করে এই মুখপাত্র বলেন, ‘বুয়েটে এখনো ধর্মঘটের নামে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করতে চাইছে চক্রান্তকারীরা। সরকার শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নেয়ার পরেও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ নষ্ট করার জন্য চক্রান্তকারীরা আবার পাঁয়তারা শুরু করেছে। কোনভাবেই সরকারকে শান্তিতে কাজ করতে দেবে না। বিএনপি-জামায়াতের অশুভ তৎপরতা চলছেই।’

অপ্রয়োজনীয় কিছু দাবি দিয়ে শিক্ষাঙ্গনের মধ্য অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টি করে লাশ ফেলাতে চাইছে বলেও মন্তব্য করেন নাসিম।

বিএনপির চিঠির প্রসঙ্গে নাসিম বলেন, ‘বিএনপি চিঠি দিয়েছে। অথচ ভারতের সাথে চুক্তির পুরো বিষয়টি পরিষ্কার। সংসদে তো দাঁড়িয়ে কিছু বললেন না। জনগণের ভোগান্তি নিয়ে তো কিছু বলেন না। শুধু নিজেদের সুবিধা নিয়েই বিএনপি সংসদে কথা বলে। যারা রাজনীতিতে ব্যর্থ তারা সবকিছুতেই ব্যর্থ।’

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য বলেন, ‘বিএনপি পারে না এমন কোনো কাজ নেই। তারা মিডিয়াতে নিউজ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন। শেখ হাসিনা দেশবিরোধী কোনো কাজ করেননি, কোনোদিন করবেনও না।’

১৪ দলের শরিক জোটের নেতারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এসইউজে/এইচআর

 

রাজনীতি: আরও পড়ুন

আরও