থলের বিড়ালের মতো দুর্নীতি বেরিয়ে আসছে: ফখরুল

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

থলের বিড়ালের মতো দুর্নীতি বেরিয়ে আসছে: ফখরুল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৩:১১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

থলের বিড়ালের মতো দুর্নীতি বেরিয়ে আসছে: ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আজ চেষ্টা করেও দুর্নীতি আর থামিয়ে রাখা যাচ্ছে না। থলের বিড়ালের মতো দুর্নীতি বের হয়ে আসছে।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন। 'বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তি দাবি উপলক্ষে' এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘুষের প্রসঙ্গ টেনে মির্জা ফখরুল বলেন, এখন ভাইস চ্যান্সেলর নাম চলে এসেছে। উনি না কি ইতোমধ্যে এক কোটি ৬০ লাখ টাকা দিয়ে দিয়েছেন। তাহলে শুধু মাত্র ছাত্র কেনো? ভাইস চ্যান্সেলরের কি হবে?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ও ডিন রাতের বেলায় ছাত্র ভর্তি করছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

গতকাল পুলিশ কমিশনার নতুন জয়েন্ট করেছেন উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, তিনি ভালো ভালো কথা বলেছেন। একটা কথা বলেছেন, যদি কোন ওসি কাজ না করে এবং সেবার বিনিময়ে অর্থ চান তাহলে আমাদেরকে জানাবেন। আমরা সেখানে গিয়ে বসবো। আমরা তার এ বক্তব্যকে সাধুবাদ জানাই।

আসামের নাগরিকপঞ্জির বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আসামের মন্ত্রী বলেছেন, এখানে যারা আছে, সবাইকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে। কিন্তু আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, আমরা ভারত সরকারকে বিশ্বাস করতে চাই। ধিক এই নতজানু সরকারের পররাষ্ট্রনীতিকে, ধিক এই গণতন্ত্রহরণকারী সরকারকে।

বিএনপির নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বিএনপির মহাসচিব বলেন, আমাদের অধিকার আমাদেরকেই ছিনিয়ে আনতে হবে, কেউ আমাদের অধিকার দিয়ে যাবে না। জনগণকে তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠিত করবার জন্য তাদেরকেই দাঁড়াতে হবে। বেগম খালেদা জিয়া গণতন্ত্র ও স্বাধীনতা- সার্বভৌমত্বের প্রতীক। তাই গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার জন্য দাঁড়াতে হবে। সব কিছু নিয়ে রুখে দাঁড়াতে হবে। রাজপথে তার প্রতিবাদ করতে হবে। আমাদের অধিকার আমাদেরকেই ছিনিয়ে আনতে হবে। কেউ আমাদের অধিকার দিয়ে যাবে না।

তিনি বলেন, রাজনীতিবিদরা এখন আর রাষ্ট্র পরিচালনা করছেন না, রাষ্ট্রই এখন রাজনীতিবিদদের পরিচালনা করছে মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেন, জনগণের সঙ্গে সরকারের কোন সম্পর্ক নেই। তারা জনগণ থেকে সম্পূর্ণ বিছিন্ন। একারণে নির্বাচনের আগে রাতে ভোট চুরি করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে হয়।

জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সহ-সভাপতি মিজানুর রহমানের  সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাদেক খানের সঞ্চলনায় মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল,  মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক জয়নুল আবেদীন,  স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরীন সুলতানা প্রমুখ।

এমএইচ/

 

রাজনীতি: আরও পড়ুন

আরও