খালেদার মুক্তির পর নির্বাচনের দাবি ফখরুলের

ঢাকা, ১৫ জুলাই, ২০১৯ | 2 0 1

খালেদার মুক্তির পর নির্বাচনের দাবি ফখরুলের

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৯:২১ অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০১৯

খালেদার মুক্তির পর নির্বাচনের দাবি ফখরুলের

‘একদলীয় শাসন’ দীর্ঘায়িত করতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে উল্লেখ করে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইমলাম আলমগীর দুটি দাবি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমাদের প্রথম দাবি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি। দ্বিতীয় দাবি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন।

বুধবার বিকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন মির্জা ফলখুল।

নির্যাতিতদের সমর্থনে আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষে ‘নিরবতাও নির্যাতনের কারণ হতে পারে’ শীর্ষক এ আলোচনার আয়োজন করে বিএনপি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করতে একদলীয় শাসন কায়েমের জন্য চক্রান্ত করে গণতন্ত্রের নেত্রী খালেদা জিয়াকে বন্দি করে রাখা হয়েছে। একযুগ ধরে বিএনপির নেতাকর্মীদের উপর নির্যাতন চলছে। সারা বিশ্বে তা নজীরবিহীন ঘটনা।   

তিনি বলেন, আজকে যারা নির্যাতিত হয়েছেন, তারা বারবার বলছেন, আমরা নির্যাতিত হয়েছি, তবে আমরা মানসিকভাবে পরাজিত হইনি। এই মুহূর্তে আমরা চাই সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এই হিংস্র শক্তিকে পরাজিত করবো।

স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেন, রিমান্ডের নামে অপরাধীকে অপরাধ স্বীকারে বাধ্য করা হয়। এমন নির্যাতন বন্ধ না হলে দেশ কোনোদিন সভ্য হবে না।

বিএনপির মনবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মো. আসাদুজ্জামানের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজউদ্দিন আহমেদ, অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী প্রমুখ।

সেমিনার সঞ্চালনা করেন ব্যারিস্টার ফজলুল করিম মন্ডল জুয়েল।

বিগত বছরে নির্যাতিত সিরাজগঞ্জের মেরিনা মেরী, ময়মনসিংহের নুরুজ্জামান চাঁন, বিএনপি নেতা আনিসুর রহমান তালুকদার খোকনও বক্তব্য দেন।

এছাড়া একাদশ জাতীয় নির্বাচনের পরদিন গণধর্ষণের শিকার নোয়াখালীর সূবর্ণচরের পারুল বেগমও বক্তব্য দেন।

এমএইচ/এসবি

আরও পড়ুন...
খালেদা জিয়া শিগগিরই মুক্তি পাবেন: মওদুদ

 

রাজনীতি: আরও পড়ুন

আরও