‘রাব্বানী, এশাকে বঞ্চিত করলেন কেন?’

ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

‘রাব্বানী, এশাকে বঞ্চিত করলেন কেন?’

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:৪০ অপরাহ্ণ, মে ১৬, ২০১৯

‘রাব্বানী, এশাকে বঞ্চিত করলেন কেন?’

ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণার পর থেকেই ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন পদবঞ্চিতরা। এতে তাদের অনুসারিরাও শামিল হচ্ছেন।

এবারের কমিটিতে পদবঞ্চিত হয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইফফাত জাহান এশা। এতে তার অনুসারিরাও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

এমনই এক শুভাকাঙ্ক্ষী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক (ইংরেজি বিভাগ) মো. কামরুল হোসাইন।

নিজের ফেসবুকে তিনি ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে ‘জাতীয় ভণ্ড’ আখ্যায়িত করেছেন। তার কাছে প্রশ্ন রেখেছেন, কেন এশাকে বঞ্চিত করা হলো?

ইফফাত জাহান এশা হলেন সেই নেত্রী, যাকে কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় ছাত্রীদের মারধর ও রগ কেটে দেয়ার মিথ্যা অভিযোগে হলে জুতার মালা দিয়ে ঘোরানো হয়েছিল।

এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়াও ছাত্রলীগ থেকে প্রথমে তাকে বহিষ্কার করা হয়। তদন্তে অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হলে ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতা ক্ষোভ উগরে দেন। তারা এশার পাশে দাঁড়ান, তাকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেন। বিশ্ববিদ্যালয়ও তার বহিষ্কারাদেশ তুলে নেয়।

কামরুল হোসাইন লেখেন, ‘মানবতার হকার, জাতীয় ভণ্ড গোলাম রাব্বানী ভাই, সেদিন তো ঠিকই এশার মাথায় হাত রেখে প্রতিবাদ করেছিলেন ভালো পদ পাওয়ার জন্য। আজ যখন আপনার হাতে কলমের ক্ষমতা আছে এশাকে বঞ্চিত করলেন কেন??? আপনি তো একটা জাতীয় ভণ্ড।’

তিনি আরও লেখেন, ‘লজ্জা যদি বিন্দু পরিমাণ আপনার মাঝে থেকে থাকে, তাহলে বিবাহিত, মাদকাসক্ত, এজেন্টদের বিরুদ্ধে অতীতে আপনি সর্বোচ্চ সোচ্চার যেহেতু ছিলেন, তাই আপনার সময়ে উক্ত অভিযুক্তদের সর্বোচ্চ পুনর্বাসন করার জন্য আপনার অবশ্যই পদত্যাগ করা উচিত।’

এর আগে গত সোমবার ৩০১ সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি প্রকাশ করে ছাত্রলীগ। এরপর থেকেই পদবঞ্চিত ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা কমিটি প্রত্যাখ্যান করে ঢাবি ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করেন। তাদের বিক্ষোভে হামলা চালিয়ে নারী কর্মীদেরও আহত করা হয়।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কামরুল হোসাইন

পদবঞ্চিতদের অভিযোগ, ত্যাগীদের বাদ দিয়ে বর্তমান কমিটিতে অযোগ্য, অছাত্র, বিবাহিত, বহিষ্কৃত ও সন্ত্রাসীদের নেতা বানানো হয়েছে।

উত্তেজনার মধ্যেই গতকাল বুধবার ছাত্রলীগের সাংগঠনিক নেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবনে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে ডেকে বিতর্কিতদের বাদ দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

ওএস/আইএম