সংসদ নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক, উপজেলা নির্বাচন একদলীয়: বি চৌধুরী

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯ | ১২ বৈশাখ ১৪২৬

সংসদ নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক, উপজেলা নির্বাচন একদলীয়: বি চৌধুরী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৭:১৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ২১, ২০১৯

সংসদ নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক, উপজেলা নির্বাচন একদলীয়: বি চৌধুরী

সংসদ নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হলেও উপজেলা নির্বাচন একদলীয় হচ্ছে এমন মন্তব্য করেছেন যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান এবং বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক এ কিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।

তিনি বলেন, উপজেলা নির্বাচন অংশগ্রহণমূক হলো না কেনো সরকারকে এটা ভাবতে হবে। এ নির্বাচনে প্রতিযোগিতা ছিল একদলের মধ্যে সীমাবদ্ধ। তাই এটা একদলীয় নির্বাচন হয়েছে। আবার ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতিও ছিল খুবই কম।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

যুক্তফ্রন্টের শরিক দল বাংলাদেশ শরীয়াহ আন্দোলনের দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে এ আলোচনার আয়োজন করা হয়।

বি চৌধুরী বলেন, নির্বাচনকে অবশ্যই অংশগ্রহণমূলক করতে হবে। ভোটাররা কেনো ভোট দিতে যায় না, এটা নিয়ে ভাবতে হবে। ভোটাররা ভোটবিমুখ হলে গণতান্ত্রিক ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়বে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, বিরোধী দলকে রাজনীতি করার সুযোগ দিতে হবে। কারণ বিরোধী দল ছাড়া গণতন্ত্র সম্পূর্ণ হয় না।তাদের সমান সুযোগ-সুবিধা দিতে হবে।


জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের রুহের মাগফেরাৎ কামনা করে সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, বঙ্গবন্ধুর প্রধান শপথ ছিল গণতান্ত্রিক দেশ গড়ার, মানুষের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার। এ্খন ভোটদানের অধিকার আছে কি, সেটা গুরুত্বপূর্ণ ভাবনার বিষয়।

ঘৃণার রাজনীতির পরিবর্তে শ্রদ্ধার রাজনীতি প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানিয়ে যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান বলেন, এই সংস্কৃতি যেদিন প্রতিষ্ঠিত হবে সেদিনই প্রকৃত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে।

তিনি আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক করার জন্য সব রাজনৈতিক দলকে এই নির্বাচনে অংশগ্রহণের আহ্বান জানান।

বাংলাদেশ শরীয়াহ আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা আমীর হাফেজ মাওলানা মুহম্মদ মাসুম বিল্লাহর সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের নায়েবে আমীর মুফতি শাহাদাত হোসাইনের সঞ্চালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন- যুক্তফ্রন্টের প্রধান সমন্বয়ক এবং বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য গোলাম সারোয়ার মিলন, বিএলডিপির চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন আল আজাদ, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ড. এম.এ মুকিত, শরীয়াহ আন্দোলনের মহাসচিব হাফেজ মাওলানা নজরুল ইসলাম, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান হামদুল্লা আল মেহেদী, শরীয়াহ আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা নজরুল ইসলাম, মুফতি রুহুল আমিন, মুন্না রহমান লুৎফর, ডা. ফয়েজ আহমাদ, সাইফুল ইসলাম, মাওলানা আছাদুজ্জামান নূর প্রমুখ।

এমএইচ/এএসটি