পুলিশের বিরুদ্ধে রিজভীর গুরুতর অভিযোগ

ঢাকা, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০১৯ | ১২ চৈত্র ১৪২৫

পুলিশের বিরুদ্ধে রিজভীর গুরুতর অভিযোগ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ১:৫৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৮

পুলিশের বিরুদ্ধে রিজভীর গুরুতর অভিযোগ

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে-আইজিপি সব ডিআইজি ও এসপিদেরকে আজ বুধবার ঢাকায় তলব করেছেন।

বিএনপির আড়াই লাখ নেতাকর্মীদের একটি তালিকা করেছে পুলিশ। ডিআইজি এবং এসপিদের সঙ্গে বৈঠকের পর চিরুনী অভিযান চালিয়ে ঐসব নেতাকর্মীদেরকে গ্রেফতার করে নির্বাচনী মাঠ ফাঁকা করা হবে।

মূলত: শত বাধা বিপত্তি-গ্রেফতার-হামলা উপেক্ষা করে চারদিকে ধানের শীষের যে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে সেটিকে থামিয়ে দিতেই এই অভিযানের পরিকল্পনা নিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন তিনি।

রিজভী বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে ধানের শীষের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। সারাদেশে জনগণ এখন ঐক্যবদ্ধ।

এই সরকার আগামী নির্বাচনে নিশ্চিত ভরাডুবি আঁচ করতে পেরে হামলা গ্রেফতার বাড়িয়ে দিয়েছে। টিকে থাকার জন্য শেষ মরনকামড় দিচ্ছে এখন। সারাদেশে নৌকাডুবির আওয়াজ উঠেছে।

এখন পতনের ক্ষণগননা চলছে। তাই পলায়নপর সরকার নানামুখী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এবং ২০ দলীয় জোট নির্বাচনে অংশ নেয়ার ঘোষণা দেয়ার পরই চরম দুশ্চিন্তায় পড়ে গেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। একাধিক গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে তারা জানতে পেরেছে ক্ষমতা এবার হাতছাড়া হয়ে যাবে।

রিজভী আরো বলেন, আমাদের কাছে প্রমাণসহ তথ্য আছে, গত ১০ ডিসেম্বর সোমবার পুলিশ সদরদপ্তরে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের কতিপয় নেতাদের নিয়ে একটি গোপন বৈঠক হয়েছে।

এ বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে নির্বাচনী প্রচারণায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকদেরকে মাঠে নামাতে সর্বোচ্চ পদক্ষেপ নেয়া। একটি পর্যায়ে তারা নিজেরাই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকদের ওপর হামলা চালাবে। প্রয়োজনে বড় ধরণের নাশকতাও করতে পারে। পরে এসব হামলা ও নাশকতার দায়ভার চাপাবে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের ওপর।

এসব ঘটনার মাধ্যমে তারা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বোঝানোর চেষ্টা করবে যে, যারা এখনই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকদের ওপর হামলা করতে পারে তারা ক্ষমতায় আসলে পরিস্থিতি কী হবে।

গতকাল মঙ্গলবার নির্বাচনী প্রচার প্রচারণার সময় বিএনপির প্রার্থীদের ওপর হামলার চিত্র তুলে ধরে এসব ঘটনার নিন্দাও জানান তিনি।

এমএইচ/এএসটি