নির্বাচনের হার-জিত ঐক্যফ্রন্টের হাতেই: কাদের সিদ্দিকী

ঢাকা, রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২ পৌষ ১৪২৫

নির্বাচনের হার-জিত ঐক্যফ্রন্টের হাতেই: কাদের সিদ্দিকী

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৮:৪৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৬, ২০১৮

নির্বাচনের হার-জিত ঐক্যফ্রন্টের হাতেই: কাদের সিদ্দিকী

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, আমি বিএনপিতে যোগদান করি নাই, আমি ড. কামাল হোসেনের ঐক্যফ্রন্টে যোগদান করেছি। নির্বাচনে জয়-পরাজয় আপনাদের হাতে।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

একআগে সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে কাদের সিদ্দিকী ঐক্যফ্রন্টে যোগদান করেন।

যোগদানের পরের দিন তিনি ঐক্যফ্রন্টের এই সভায় বক্তব্য রাখেন। ঢাকাও ঐক্যফ্রন্টের এটা প্রথম জনসভা।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, শেখ হাসিনা আপানাদেরকে বিজয়ী করতে পারবে না আবার পরাজিতও করতে পারবে না। যদি জিততে চান তাহলে সব ভুলে ঐক্যফ্রন্টের শান্তির পতাকাতলে নির্বাচন পর্যন্ত হিমাদ্রির মতো সোজা হয়ে দাঁড়ান।

তিনি বলেন, নির্বাচন দিতে হবে হাসিনাকে। উপায় নাই। আমি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই না। কারণ আজকে বেগম খালেদার মুক্তি চাওয়ার কোনো দরকার নাই। আমাদের চিন্তা করতে হবে হাসিনার মুক্তি কবে হবে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া জেলখানায় গিয়ে গণতন্ত্রের প্রতীক হয়েছে। বেগম খালেদা জিয়া জেলখানায় বন্দি থেকে প্রতিটি মানুষের অন্তরে জায়গা করে নিয়েছে। আমি জানি বাংলাদেশকে বন্দি রাখা যায় না, তাই বেগম খালেদা জিয়াকেও বন্দি রাখা যাবে না।

বিএনপির নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে কাদের সিদ্দিকী বলেন, আপনাদের নেতারা কিন্তু খুব চিন্তিত। আপনাদের কর্মীদের জেলে নেয়ার জন্য। আমি খুব খুশি আপনাদের পেছনে পুলিশ দৌঁড়ানোর কারণে। কারণ আপনাদের পেছনে পুলিশ দৌঁড়াতে দৌঁড়াতে পুলিশ হয়রান হয়ে যাবে তখন কিন্তু ভোট চুরি করতে পারবে না।

তিনি বলেন, বিএনপির বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের অভিযোগ- বিএনপি রাজাকারের গাড়িতে পতাকা তুলে দিয়েছে, কিন্তু অভিযোগটি সত্য নয়। আওয়ামী লীগ প্রথম রাজাকারের গাড়িতে পতাকা তুলে দিয়েছে। আওয়ামী লীগ প্রথম সরিষাবাড়ির রাজাকার নূরুল আলমের গাড়িতে পতাকা তুলে দিয়েছে, আওয়ামী লীগ রাজাকার মহিউদ্দিনের গাড়িতে পতাকা তুলে দিয়েছে, আওয়ামী লীগ আশিকুর রহমানের গাড়িতে পতাকা তুলে দিয়েছে।

তিনি বলেন, আজ এই জনসভাকে ভয় পেয়ে সরকার রাস্তায় গাড়ি বন্ধ করে দিয়েছে। গাবতলী বন্ধ, টঙ্গী বন্ধ। সব রাস্তা বন্ধের পরেও আমার বোনরে একটু বলা উচিত সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আইসা দেইখা যাইয়েন। গত ৪ তারিখ উনি (প্রধানমন্ত্রী) এখানে এসেছিলেন আল্লামা শফীর এক মিটিং-এ। আল্লামা শফী ভুলে যেতে পারেন কিন্তু আমি কাদের সিদ্দিকী ভুলি নাই। শাপলা চত্বরে ঈমানদারের রক্ত ঝঁরিয়েছে। এই রক্তের বদলা না নিলে আমরা বেঈমানে পরিণত হবো।

বঙ্গবীর বলেন, একটা জালেমের কথার মূল্য আছে কিন্তু সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের কথার কোনও মূল্য নাই।

টিএটি/এসবি