অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধানে খসরুর হোটেল সারিনায় দুদক

ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ | ৫ পৌষ ১৪২৫

অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধানে খসরুর হোটেল সারিনায় দুদক

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৫:৫৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৮

অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধানে খসরুর হোটেল সারিনায় দুদক

অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর মালিকানাধীন একটি হোটেলে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে দুদকের পরিচালক কাজী শফিকুল আলমের নেতৃত্বে একটি টিম বনানীতে হোটেল সারিনায় এ অভিযান চালায়।

বিএনপি নেতা আমীর খসরুর বিরুদ্ধে অনুসন্ধান সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করতে দুদক এ অভিযান চালিয়েছে বলে পরিবর্তন ডটকমকে নিশ্চিত করেন দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টচার্য্য।

তিনি বলেন, দুদকের পরিচালক কাজী শফিকুল আলমের নেতৃত্বে একটি টিম বনানীতে আমীর খসরুর হোটেল সারিনায় যায়।

দুদক সূত্র জানা গেছে, হোটেল থেকে বেশ কিছু তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। দুদকের কর্মকর্তারা সেখানে আরও কিছু তথ্যের চান। কিন্তু হোটেল কর্তৃপক্ষ তৎক্ষণিক বিস্তারিত দিতে পারিনি। এসময় হোটেল কর্তৃপক্ষ সময় চাইলে তাদেরকে সময় দেয়া হয়েছে।

এর আগে গত ১৬ সেপ্টেম্বর আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে দুদক কার্যালয়ে হাজির হওয়ার নোটিসের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দায়ের রিট খারিজ করে দেয় হাইকোর্ট। ফলে আমীর খসরুকে দুদক কার্যালয়ে হাজির হতেই হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

গত ১৬ আগস্ট অবৈধ লেনদেন, মুদ্রা পাচার, অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে আমীর খসরুকে তলব করে চিঠি পাঠায় দুদক। দুদকের পরিচালক কাজী শফিকুল আলম স্বাক্ষরিত চিঠিতে গত ২৮ আগস্ট তাকে সেগুনবাগিচার প্রধান কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়েছিল।

টিএটি/এমএসআই