নীলনকশা বাস্তবায়নে ধাপে ধাপে নির্বাচনের পরিকল্পনা: বিএনপি

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫

নীলনকশা বাস্তবায়নে ধাপে ধাপে নির্বাচনের পরিকল্পনা: বিএনপি

মাহমুদুল হাসান ৯:৩১ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৭, ২০১৮

নীলনকশা বাস্তবায়নে ধাপে ধাপে নির্বাচনের পরিকল্পনা: বিএনপি

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন ধাপে ধাপে অনুষ্ঠিত হলে সেটা সরকারের ‘ভোট কারচুপি আর নীলনকশা বাস্তবায়নের নির্বাচন’ হবে বলে মনে করছে বিএনপি। শনিবার সন্ধ্যায় তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় পরিবর্তন ডটকমকে এ শঙ্কার কথা জানান বিএনপি নেতারা।

এরআগে দুপুরে টাঙ্গাইলে এক অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ছবিসহ ভোটার আইডি কার্ড হওয়ায় ফলে এখন আর জালিয়াতির নির্বাচন করা সম্ভব নয়। তবে দুই এক জায়গায় গুণ্ডা বাহিনী দিয়ে ভোটকেন্দ্র দখল করার সম্ভবনা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এজন্য পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দিয়ে সারাদেশে কয়েক ধাপে জাতীয় সংসদ নির্বাচন আয়োজন করার পরিকল্পনাও করা হয়েছে।

সরকারের এই পরিকল্পনার কথা জানতে চাইলের বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘কয়েক ধাপে নির্বাচন অতীতে কখনো হয়নি। এর পেছনে নিশ্চয়ই কোনো উদ্দেশ্যে থাকতে পারে। এখনো যেহেতু বিষয়টি দৃশ্যমান হয়নি, তাই এই মুহূর্তে কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে আমরা সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা বলছি।’

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘আমরা আগামী নির্বাচন নিয়ে যে শঙ্কার কথা বলছি, এটা অর্থমন্ত্রী বক্তব্যে স্পষ্ট। ধাপে ধাপে হলে সেটা কারচুপি আর নীলনকশা বাস্তবায়নের নির্বাচন হবে।’

তিনি বলেন, ‘সকল দলের অংশ গ্রহণে আমরা একটা গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের কথা বলছি। সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সহায়ক সরকার প্রয়োজন। দলীয় সরকারে অধীনে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না। সুতরাং সরকার আরেকটি নীলনকশার নির্বাচনের দিকে যাচ্ছে।’

বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব মজিবুর রহমান সরোয়ার পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘বর্তমান সরকারকে আমরা বৈধ সরকার মনে করি না। আর যারা জনগণের প্রতিনিধি দাবি করছেন, তারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়। তাই আগামীতে তাদের পরাজয় নিশ্চিত জেনে নীলনকশা অনুযায়ী আরেকটা নির্বাচন করতে চায়।’

ধাপে ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কোনো পরিকলন্পনা আছে কি না জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘আমাদের কোনো পরিকল্পনা থাকতেই পারে না। আমাদের পরিকল্পনা সংবিধান।’

তিনি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত সংবিধানে যেটা আছে, সেটা হলো একদিনে নির্বাচন করতে হবে। সংবিধান অনুযায়ী আমাদের প্রস্তুতি। অন্য কে কী বলল এ ব্যাপারে আমাদের কিছু জানা নেই। সংবিধানের বাইরে কমিশন নেই।’

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘এ বিষয়ে আমাদের জানা নেই। নির্বাচন একদিনেই হয়, একদিনেই হবে। ধাপে ধাপে করতে হলে সংবিধান সংশোধন করতে হবে। আগামী সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনের সকল আসনে একদিনেই নির্বাচন হবে।’

এমএইচ/এমএসআই