কবিতা - পৃষ্ঠা - ১

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

কুশীলব

কুশীলব

সে এক দামাল তনু মনের পথে চুপটি করেকোন অছিলায় গড়ল বাসা ভুবনজুড়ে, কানন জুড়ে ছায়ার সাথে এক লহমায় জোছনা ডাকে চামড় জোড়া ছিন্ন ডাঙায়।।...

পৃথিবীকে নিয়ে যাই উচ্চতায় বার বার

পৃথিবীকে নিয়ে যাই উচ্চতায় বার বার

শূন্যতার অসীমে বসবাস ভেসে থাকা এই শূন্যতায় ...

ব্যর্থতার পোস্টবক্স

ব্যর্থতার পোস্টবক্স

এতো চিঠি এ তো যে নোটিশ অথবা ই-মেইল. . . প্রতিদিন আমি এক ব্যর্থতার পোস্টবক্স,  প্রতিদিন স্বাগত জানাবো বলে  যদিও দরোজা খুলি,  দেখি সাফল্য নামের...

জেব্রা ক্রসিংয়ে

জেব্রা ক্রসিংয়ে

রক্তজবা পিষে দিলে, ভেতরে যে রং আর রূপ আর রস সুন্দরের চিত্রকলা খোলে; কিংবা খুব নিরিবিলি পেকে-ওঠা পুঁইফল অফসেট পেপারের ঘঁষা খেয়ে, নিমেষেই যে কবিতা...

অন্তশীলা

অন্তশীলা

তুলামেঘ নাকি বিবর্ণ মরুভূমি থেকে তাকে খুঁজে এনেছি !...

বিন্দুতে বিশ্বভ্রমণ

বিন্দুতে বিশ্বভ্রমণ

যে পথে আমার পা সে পথেই জীবন আমি হাঁটছি পথের শেষ থেকে পথ সৃষ্টি করে অচল মুদ্রা ফেলে চলেছি আপন ইচ্ছার কাছে দেহের চামরা খুলে রেখেছি রোদ-বাতাসের...

নিভৃত পলায়ন

নিভৃত পলায়ন

বটবৃক্ষ, বোধিবৃক্ষ জল গড়িয়ে কৃষ্ণপক্ষ। শুচিস্নাতা গঙ্গাজলে জোৎস্নামায়া উছলে ওঠে।...

ফিরে এসো উড়ান

ফিরে এসো উড়ান

মৌসুমি হাওয়া নাও উড়িয়ে ঝরাপাতা নিজেকে প্রাচীন বটগাছ ভাবতেই শেকড়ের ভারে প্রোথিত হয়ে যাওয়া খুঁটে খুঁটে যাও হাওয়া, পরিযায়ী পক্ষীর ঠোঁট বৃক্ষের...

আঁকা শেখানো

আঁকা শেখানো

আমার ছেলেটি তার পেইন্ট-বক্স আমার সামনে রেখে একটি পাখি এঁকে দিতে বললো। আমি ব্রাশ হাতে নিয়ে ধূসর রঙে আঁকলাম তালা ও গরাদ সমেত একটি সমচতুর্ভুজ।....

আহা কতদিন

আহা কতদিন

কতদিন আকাশ দেখিনা আর দেখিনা শরতের চাঁদ-মাখা রাত শহুরে আকাশ বন্দি তার-জালিকায় বেরসিক দালানের ছাদে ঢেকে আছে নীল...

ডাকবো না বোন

ডাকবো না বোন

ছুঁয়ে দিলেই নিষ্পত্র হয় বৃক্ষ, শব্দ নৈঃশব্দ হয়, ভেঙে পড়ে বাড়ি। বোন বলে ডাক দিলেই উধাও কাশবন, হারায় মেঘমালা, ডাকবো না। দুর্গার হাত থেকে খসে পড়ে বালা,...

অভিমান

অভিমান

আমি ধন্যবাদ দিতেই  ঈশ্বরের চোখে অশ্রু গড়ায় ! বুকটা যেন তাঁর দুমড়ে মুচড়ে  একাকার হয়ে যায় !...

এইসব গাঁয়ে

এইসব গাঁয়ে

রোদমাখা শিশিরেতে পা ফেলে হাঁটি সব শেষে গ্রামদেশে সোনা ফলা মাটি ভোরের সূয্যি মামা জাগে চোখমেলে গাঁয়ের শিশুর দল হাসে আর...

জাতীয় জুতো পরিষদ

জাতীয় জুতো পরিষদ

জুতোর কান্না শুনতে একদিন রাজপথে  ফুটপাথ হয়ে শুয়েছিলাম সূর্যের প্রখর আলোয় জ্বলছিলো পলিশ করা  এক এক জোড়া জুতো সোডিয়াম আর নিয়নে কী এক...

স্বমেহন

স্বমেহন

[যদি কেউ বলে, আপনি পারবেন না ; তার মানে সে কখনও পারেনি ]...

নোঙর মাপা

নোঙর মাপা

সোনালি নোঙর ডাকে ইশারায়, নৌকোর নীল পালগুলো জাগে স্বপ্নের ডানার মতো অনাবৃত করে নতুন এক দিন। আমার কাব‌্যদেবী, এসো প্রস্থান করি! উদ্বিগ্ন গলুই...

জলের কাব্য

জলের কাব্য

আজকে তুমি জল পেরুবে আজকে তুমি শুদ্ধ হবে আকাশ ছোঁয়া জলে...

কবি

কবি

কবি এলেন ছুটে গেলেন বানভাসিদের কাছে দুর্গতদের জন্য দরদ কবির মনেও আছে।...

ডাইরির পাতা

ডাইরির পাতা

চুপি চুপি তোমার ডায়রির পাতায় চোখ বুলাই তাতে নতুন বাক্যের ঊর্মিমালা নেই রঙিন চোখে শুভ্র আঙিনা দেখি কোনো শব্দশিশু এখনো জন্মায়নি  দুঃখ নিয়ে...

পাতা ঝরা

পাতা ঝরা

শরৎ নেমেছে দীর্ঘ পাতায় আমাদের প্রতি প্রেমে, যবের থোকায় বিচরণরত ইঁদুরেও তার ছাট; ঐ যে ওপরে রোয়ান গাছেতে হলুদ পাতার বান, বুনো স্ট্রবেরি পাতাতেও আজ...

অভিমান

অভিমান

খুব অভিমান করে যদি ঘুমিয়ে পড়ি  বুনোঘাস অথবা কামিনীর ঝোঁপের তলায়!  এর চেয়ে বড় আর হয় নাকি কোনো অভিমান? ...