অন্তশীলা

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

অন্তশীলা

খোকন মাহমুদ ৪:৫৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৭, ২০১৮

অন্তশীলা

তুলামেঘ নাকি বিবর্ণ মরুভূমি থেকে
তাকে খুঁজে এনেছি !

কি আশ্চার্য সে কাঁপছে ... কাচঘরগুলো
নর্তকির মত ঘিরে ধরেছে আমাকে
এবার তাহলে পাশ ফিরতেই হবে ,জিরাফ আর নাগরদোলায় তাকে চড়িয়ে দিয়েছি
পাতাল ট্রেনের ভেতর থেকে উড়ে এলো ফুলতোলা টুপি,তুলতুলে মসৃণ হ্যান্ডব্যাগ
আবার তা হলে- ময়ূরাক্ষী নদ ? সাদা কাশবনের-
পাশ ঘেষে এগিয়ে এলো খরগোশ ,ঝড়াপাতার শব্দাবলী
বৃষ্টি এসে গেঁথে গেছে মেঘের দীর্ঘ চূড়ায়, বাঁশি বাজছে...

অন্ধডানার ভেতর থেকে আবার তাকে তুলে নিতে হবে।

শব্দ ও তাঁতশিল্প

বহুদূর হেঁটে গিয়ে আবার নিজের দিকেই ফিরে এসেছি
বুঝতেই পারিনি বিস্মরণের চূড়ো থেকে কতখানি আগুন পুষেছি

কতটুকু ব্যর্থতায় মাথা নিচু করা জীবন দাঁড়িয়ে গেছে পাশাপাশি
যে পথ অদৃশ্য রেখায় মিলেছে - মনে হয় সে দিকেই ফিরে আসি

এসেই বলি: আমিও তো পেতে পারি হাত উচুঁ করা দিন
বৃষ্টির ডানা থেকে গুড়ো গুড়ো ইচ্ছে কুড়িয়ে বলি: আমিও মেঘে আসিন

আমিও ঝরাপাতা থেকে অবিকল এক একটি মৌনরথ ভাসাতে পারি
দূরাভাষ ধ্বনি থেকে কবিতার ডানা ভেসে আসে, মনেকর সে আমারি-

শিল্প ও মৌনতার নিমগ্ন মৌমাছি,যদি পারি তাকেও উড়াবো...
ঘাসফুল থেকে শিশিরের শব্দবিনুনি,কড়ি ও কুহুক-কুড়াবো

আমার ও মৃত্তিকা,ইতিহাস থেকে ব্যর্থতা আর রক্তাক্ত দাগ উড়ুক পতাকার মতো
আমাকে চেনে ফরিঙের দল,ধানফুল, হৃদয়ে শব্দ ও তাঁতশিল্প বুনেছি অবিরত..