ধ্বংস্তূপে স্কুলছাত্রীর হাতের নড়াচড়া

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫

ধ্বংস্তূপে স্কুলছাত্রীর হাতের নড়াচড়া

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:৫৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৭

ধ্বংস্তূপে স্কুলছাত্রীর হাতের নড়াচড়া

মেক্সিকোতে ভয়াবহ ভূমিকম্পে ধসে যাওয়া স্কুলভবনের নিচ থেকে একটি মেয়ের হাতের নড়াচড়া আশার সঞ্চার করেছে উদ্ধারকর্মীদের। শক্তিশালী এই ভূমিকম্পে নিহত ২৩০ ছাড়িয়েছে।

আলজাজিরার খবরে বলা হয়, ভূমিকম্পে ধসে যাওয়া ভবনগুলো থেকে আটকে পড়া ও নিহতদের উদ্ধারকালে বিভিন্ন করুণ দৃশ্য দেখতে পাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা।

বিশেষ করে ধসে যাওয়া এনরিক রেবাসামেন নামে একটি স্কুলভবন থেকে ২৫টি লাশ বের করে উদ্ধারকর্মীরা। নিহতদের মধ্যে ছিল ২১ জন শিশু। এই ভয়াবহ দুঃস্বপ্নের মধ্যে একটু হলেও আশার সঞ্চার করে ধ্বংসস্তূপে চাপা পড়া একটি মেয়ের হাতের নড়াচড়া।

বুধবার সকালে ধ্বংসস্তূপে চাপাপড়া অবস্থায় সেই মেয়েটির হাত দেখতে পান হেলমেট পরিহিত উদ্ধারকর্মীরা। তখন তারা মেয়েটিকে উদ্দেশ্য করে চিত্কার করে জানাতে চেষ্টা করেন, বেঁচে থাকলে যেন সে হাত নাড়ে।

এরপর মেয়েটি তার হাত নাড়ায়। এতেই আশার সঞ্চার হয় উদ্ধারকর্মীদের মধ্যে। সঙ্গে সঙ্গে উদ্ধারকারী কুকুর পাঠিয়ে মেয়েটির জীবিত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেন উদ্ধারকর্মীরা।

শুরু হয় মেয়েটিকে উদ্ধারে প্রাণান্তকর চেষ্টা। কয়েক ঘণ্টা ধরে উদ্ধার তত্পরতা চলে এবং সেটি বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে সম্প্রচার করা হয়।

মেয়েটিকে উদ্ধার প্রচেষ্টার সঙ্গে যেন পুরো মেক্সিকো এক হয়ে যায়। উদ্ধারকাজে কোনো ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কায় খুবই সতর্কভাবে কাজ করা হচ্ছে।

সেই মেয়েটির পাশে আর কোনো শিশু আছে কিনা সেটা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, আরও অন্তত তিনটি শিশু সেখানে থাকতে পারে। তবে এটা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না তারা জীবিত আছে না মারা গেছে।

গত মঙ্গলবার ৭.১ মাত্রার ভূমিকম্পে মেক্সিকো সিটিতে বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এতে ২৩০ জনের বেশি প্রাণহানি হয়েছে।

বিভিন্ন ভবনে এখনও অনেকেই চাপা পড়ে আছে। এতে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এনরিক রেবাসামেন স্কুলের ধ্বংসস্তূপ থেকে ২১ শিশুসহ অন্তত ২৫ জনের লাশ এবং ১১ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

এসবিআই/আইএম