বাগদাদির মৃত্যু: সমালোচনার মুখে শিরোনাম পাল্টালো ওয়াশিংটন পোস্ট

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

বাগদাদির মৃত্যু: সমালোচনার মুখে শিরোনাম পাল্টালো ওয়াশিংটন পোস্ট

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:৪৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৮, ২০১৯

বাগদাদির মৃত্যু: সমালোচনার মুখে শিরোনাম পাল্টালো ওয়াশিংটন পোস্ট

উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের নেতা আবু বকর আল-বাগদাদির নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিতের পর মার্কিন প্রভাবশালী গণমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট তাদের একটি শিরোনাম নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে। যেখানে বাগদাদিকে ‘উগ্র ধর্মীয় পণ্ডিত’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়। পরে বাধ্য হয় সেটি পরিবর্তন করতে।

তুর্কি গণমাধ্যম ডেইলি সাবাহ বলছে, বাগদাদির মৃত্যু নিয়ে ওয়াশিংটন পোস্ট প্রথম শিরোনাম করে- ‘ইসলামিক স্টেটের ‘প্রধান সন্ত্রাসী’ আবু বকর আল-বাগদাদি ৪৮ বছর বয়সে মারা গেছে’। এখানে সন্ত্রাসী গ্রুপটির স্বঘোষিত নাম (ইসলামিক স্টেট) ব্যবহার করা হয়েছে, যদিও তাদের (আইএস) কর্মকাণ্ডকে ইসলাম কোনোভাবেই সমর্থন করে না।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এর পর সেটি পরিবর্তন করে আরো জঘন্য শিরোনাম করে মার্কিন গণমাধ্যমটি। দ্বিতীয় শিরোনামটি ছিল এমন- ‘ইসলামিক স্টেটের কাণ্ডারী উগ্র ধর্মীয় পণ্ডিত আবু বকর আল-বাগদাদি ৪৮ বছর বয়সে মারা গেছে’।

এই শিরোনাম করার পর পাঠকদের ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে ওয়াশিংটন পোস্ট কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে একজন গণমাধ্যমটিকে বাগদাদির কর্মকাণ্ড স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, ‘সে ছিল ধারাবাহিক (সিরিয়াল) ধর্ষক ও খুনি’।

ডেইলি সাবাহ বলছে, তীব্র প্রতিক্রিয়ার মুখে শেষ পর্যন্ত ওয়াশিংটন পোস্ট তাদের শিরোনাম পরিবর্তন করতে বাধ্য হয়। এবং তৃতীয় শিরোনামে তারা বলে, ‘ইসলামিক স্টেটের চরমপন্থী নেতা আবু বকর আল-বাগদাদি ৪৮ বছর বয়সে মারা গেছে’।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওয়াশিংটন পোস্টের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টিন কোরাট্টি কেলি শিরোনাম পরিবর্তন নিয়ে টুইটারে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘বাগদাদির মৃত্যু নিয়ে আমাদের ওভাবে শিরোনাম করা ঠিক হয়নি এবং আমরা দ্রুততার সঙ্গে সেটি পরিবর্তন করেছি।’

এর আগে রোববার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে বাগদাদির মৃত্যুর বিষয় নিশ্চিত করেন। বলেন, সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশে মার্কিন বাহিনীর বিশেষ অভিযানে বাগদাদি নিহত হয়েছে। তবে গুলিতে নয় বরং নিজের কাছে থাকা সুইসাইড ভেস্টে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে সে মারা যায় বলেও জানান ট্রাম্প।

আরপি

 

উত্তর আমেরিকা: আরও পড়ুন

আরও