২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ডেটনে হামলা, নিহত ১০

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ডেটনে হামলা, নিহত ১০

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:০২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৪, ২০১৯

২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ডেটনে হামলা, নিহত ১০

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস রাজ্যে প্রাণঘাতী হামলার ২৪ ঘণ্টা না পেরোতেই এবার ওহাইও রাজ্যের ডেটন শহরে বন্দুকধারী হামলা চালিয়েছে।

এতে ৯ জন নিহত ও অন্তত ১৬ জন আহত হয়েছেন। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতে হামলাকারীও নিহত হয়েছেন বলে খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

ডেটনের পুলিশ রোববার টুইট করে জানিয়েছে, স্থানীয় সময় রাত ১টা ২২ মিনিটের দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

পুলিশের এক মুখপাত্র বলেন, ‘হামলার ঘটনা তদন্ত করা হচ্ছে। আহত ১৬ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।’

ডেটনে হামলার আগে বন্দুকধারী টেক্সাস রাজ্যের এলপাসো শপিং সেন্টারে হামলা চালিয়ে ২০ জনকে হত্যা করে। সেখানে আরও ২৬ জন আহত হন।

ডেটনের হামলার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে, তাতে পাঁচটি দেহকে সাদা কাপড়ে ঢেকে রাখতে দেখা গেছে। আরেকটি ভিডিওতে গুলির পর গুলি করতে দেখা গেছে।

ডেটনের সহকারী পুলিশ প্রধান ম্যাট চারপার বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। ততক্ষণে ৯ জনকে হত্যা করেছে বন্দুকধারী, যিনিও পরে গুলিতে মারা গেছেন।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তারা নেড পেপারস বারের বাইরে থেকে ৪০ থেকে ৫০ রাউন্ড গুলির শব্দ শুনেছেন।

জেমস উইলিয়ামস নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী তার ফেসবুক পোস্টে সেখানকার হত্যাযজ্ঞের চিত্র তুলে ধরেছেন।

তিনি লিখেছেন, সড়কে যেদিকে চোখ যাবে লাশের পর লাশ। সেখানে তাদের পাখির মতো গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

হামলাকারীর বর্ণনায় জেমস উইলিয়ামস লেখেন, ‘হামলাকারী এআর-১৫ রাইফেল নিয়ে আসেন। কান-মুখ টুপিতে ঢাকা ও ভেস্ট পরে ছিলেন। সেখানে এসেই তিনি চারদিকে সমানে গুলি চালাতে থাকেন।’

তিনি আরও লেখেন, ‘আমি নিজেই ৮ লাশ পড়ে থাকতে দেখেছি। জানি না আরও কতজনের প্রাণ গেছে। আমার জীবনে আগে এমন বিভীষিকাময় ঘটনা দেখিনি।’

গত সপ্তাহেই ক্যালিফোর্নিয়ার গিলরিতে রসুন উৎসবে এক বন্দুকধারীর হামলায় তিনজন নিহত ও ১৩ জন আহত হন। চলতি বছরের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে নির্বিচারে গুলির ঘটনায় ২৫০ জন নিহত হয়েছেন।

আইএম

 

উত্তর আমেরিকা: আরও পড়ুন

আরও