যুক্তরাষ্ট্রে প্লাস্টিক ব্যাগে পাওয়া বাচ্চাকে নিতে চায় কয়েকশ পরিবার

ঢাকা, রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯ | ৪ কার্তিক ১৪২৬

যুক্তরাষ্ট্রে প্লাস্টিক ব্যাগে পাওয়া বাচ্চাকে নিতে চায় কয়েকশ পরিবার

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:২৯ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্রে প্লাস্টিক ব্যাগে পাওয়া বাচ্চাকে নিতে চায় কয়েকশ পরিবার

যুক্তরাষ্ট্রে নবজাতক এক বাচ্চা মেয়েকে প্লাস্টিক ব্যাগের ভেতরে পাওয়া গেছে- এ খবর প্রকাশিত হওয়ার পর বহু পরিবার তাকে দত্তক নিতে উদগ্রীব হয়ে পড়েছে।

একজন কর্মকর্তা বলেছেন, মনে হচ্ছে সারা পৃথিবীতেই যেন মেয়েটির পরিবার ছড়িয়ে আছে যারা তাকে কাছে পেতে অপেক্ষা করছে।

কর্মকর্তারা এই বাচ্চাটিকে ‘অলৌকিক’ শিশু বলে বর্ণনা করছেন এবং আপাতত তার নাম দেয়া হয়েছে ‘ইন্ডিয়া’।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম শনিবার জানায়, জর্জিয়ায় স্থানীয় লোকজন তাদের বাড়ি থেকে বাচ্চাটির কান্না শুনতে পেয়ে পুলিশকে ফোন করে এবং পরে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে।

বাচ্চাটি হলুদ রঙের একটি বড় প্লাস্টিকের ব্যাগের ভেতরে জড়ানো ছিল। পুলিশ ওই ব্যাগটি ছিঁড়ে তাকে বের করে আনার একটি হৃদয়স্পর্শী ভিডিও প্রকাশ করেছে।

সেসময় বাচ্চাটি কাঁদছিল এবং পুলিশ চেষ্টা করছিল তাকে নানাভাবে আশ্বস্ত করার।

সাথে সাথেই তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় এবং ডাক্তাররা বলছে, বাচ্চাটি সুস্থ আছে। তার দেহের কোথাও কোনো ক্ষতচিহ্ন পাওয়া যায়নি।

জুন মাসের প্রথম সপ্তাহে ঘটনাটি ঘটে। বাচ্চাটি এখন শিশু বিভাগের হেফাজতেই আছে। তার ওজন বাড়ছে।

এর মধ্যে তিন সপ্তাহ চলে গেছে। কর্মকর্তারা বলছেন, শিশুটি হাসছে এবং হাত-পা ছুড়ছে।

কর্মকর্তারা জানান, বাচ্চাটির জন্য একটি স্থায়ী ঠিকানা পাওয়ার আগ পর্যন্ত সে শিশু সার্ভিসের হেফাজতেই থাকবে।

স্থানীয় কাউন্টি শেরিফের কর্মকর্তারা বাচ্চাটির বাব-মা ও আত্মীয়-স্বজনকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন।

এক ফেসবুক পোস্টে তারা জানিয়েছেন, বেবি ইন্ডিয়ার ব্যাপারে শেয়ার করার মতো এখনও নতুন কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

তবে জর্জিয়ার পরিবার ও শিশু সার্ভিসের একজন কর্মকর্তা টম রলিংস জানিয়েছেন, তাকে নিতে আগ্রহী পরিবারের কোনো কমতি নেই।

এবিসি টেলিভিশনের গুড মর্নিং আমেরিকা অনুষ্ঠানে তিনি বলেছেন, ‘যেসব পরিবার বাচ্চাটিকে নিতে চায় তাদের লম্বা লাইন পড়ে গেছে।’

বাচ্চাটিকে নাটকীয়ভাবে উদ্ধারের খবর বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সংবাদ শিরোনাম হয়েছে এবং তারপর থেকে বিভিন্ন দেশ থেকে শত শত পরিবার তাকে দত্তক নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘আমার পুরো জীবনে এরকম অলৌকিক ঘটনা আর দেখিনি। মাতৃ-জঠরে শিশুটি যে নালী দিয়ে মায়ের সঙ্গে যুক্ত ছিল সেটি এখনও রয়ে গেছে।’

তাকে যখন উদ্ধার করা হয় তখন তার বয়স বড়জোড় কয়েক ঘণ্টা হবে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

এমআর/এইচআর

 

উত্তর আমেরিকা: আরও পড়ুন

আরও