ব্যবসায় ক্ষতি দেখিয়ে কর ফাঁকি দিয়েছেন ট্রাম্প

ঢাকা, বুধবার, ২২ মে ২০১৯ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

ব্যবসায় ক্ষতি দেখিয়ে কর ফাঁকি দিয়েছেন ট্রাম্প

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:৩৬ অপরাহ্ণ, মে ০৯, ২০১৯

ব্যবসায় ক্ষতি দেখিয়ে কর ফাঁকি দিয়েছেন ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নাকি ব্যবসায় ১১৭ কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে। আর সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে তিনি লাখ লাখ ডলার কর ফাঁকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

তবে প্রেসিডেন্ট পদে থাকাকালীন নয়, ১৯৮৫ থেকে ১৯৯৪ সালের মধ্যে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন ট্রাম্প।

মার্কিন গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, মূলত ক্যাসিনো, হোটেল এবং জমিবাড়ি ব্যবসায় ট্রাম্পের এই বিপুল ক্ষতি হয়েছিল। আর এই ক্ষতির অঙ্ক দেখিয়ে কর মওকুফের সুযোগ নিয়েছিলেন তিনি।

তবে ট্রাম্প এ ব্যাপারে টুইটারে বলেছেন, ‘৮০-৯০-এর দশকে এই রকম বিপুল পরিমাণ ক্ষতির জেরে অনেকেই কর মওকুফের সুযোগ পেয়েছিলেন। একটা অত্যন্ত পুরনো তথ্য ভুলভাবে দেখানো হচ্ছে। ফেক নিউজ় হিট জব!’

প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামার আগে নিজেকে ধনকুবের ব্যবসায়ী বলে দাবি করে নজর কেড়েছিলেন ট্রাম্প। বাবার জমিবাড়ি ব্যবসা থেকে ৪১ কোটি ৩০ লক্ষ ডলারের সম্পদ বছর তিনেক বয়স থেকেই ট্রাম্পের কাছে চলে এসেছিল বলে আগে জানিয়েছিল মার্কিন গণমাধ্যম। কিন্তু নিজের আয়কর দেওয়ার রেকর্ড কখনই প্রকাশ্যে আনেননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

খবরে বলা হয়েছে, মার্কিন কংগ্রেসের পক্ষ থেকে বহু বার সে দাবি উঠলেও ট্রাম্প সচেতনভাবেই এ ব্যাপারে এক পা-ও এগোননি।

মার্কিন একটি দৈনিকের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার বলছে, শুধু ১৯৯০ থেকে ’৯১ সালের মধ্যে ট্রাম্পের মূল ব্যবসায় প্রতি বছরে ক্ষতির পরিমাণ ২৫ কোটি ডলারেরও বেশি। এত ক্ষতি হয়েছিল বলেই এর পর থেকে প্রায় আট-দশ বছর আয়কর দিতে হয়নি ডোনাল্ড ট্রাম্পকে। ৯০-এর দশকে ট্রাম্প তার বাবা-মাকেও আয়কর এড়িয়ে যাওয়ার পথ খুঁজতে সাহায্য করেছিলেন। আর সেটা পুরোপুরি জালিয়াতির পথেই ঘটেছিল।

আরপি