গড়ে দিনে ১৫টি মিথ্যে বলেছেন ট্রাম্প

ঢাকা, সোমবার, ২১ জানুয়ারি ২০১৯ | ৮ মাঘ ১৪২৫

গড়ে দিনে ১৫টি মিথ্যে বলেছেন ট্রাম্প

পরিবর্তন ডেস্ক ৪:১৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৮

গড়ে দিনে ১৫টি মিথ্যে বলেছেন ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আগের বছরগুলোর মতোই এ বছর ক্রমাগত মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর বক্তব্য দেয়া অব্যাহত রেখেছেন বলে জানিয়েছে দেশটির সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট।

পত্রিকাটি জানায়, ২ জানুয়ারি সকালেই ট্রাম্প তার টুইটারে তিনটি প্রিয় আক্রমণের লক্ষ্যবস্তু ইরান, নিউইয়র্ক টাইমস ও হিলারি ক্লিনটন সম্পর্কে বিভিন্ন মিথ্যা দাবি করেন।

তিনি ‘সবচেয়ে ভাল ও নিরাপদ বাণিজ্যিক বিমান পরিবহনের বছরের জন্যও’ কৃতিত্ব দাবি করেন। যদিও ২০০৯ সাল থেকেই যুক্তরাষ্ট্রে কোনো বাণিজ্যিক বিমান দুর্ঘটনায় পড়েনি। বাণিজ্যিক বিমান পরিবহন নিরাপদ করায় প্রেসিডেন্টের অবদান সামান্যই।

ওয়াশিংটন পোস্টের ফ্যাক্ট চেকারের তথ্য ভাণ্ডার থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের শুরুতেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ১,৯৮৯টি মিথ্যা কথা বলেছিলেন বা ভুয়া দাবি করেছিলেন।

এই ফ্যাক্ট চেকার সিস্টেম মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রতিটি সন্দেহজনক বক্তব্য যাচাই করে দেখে। বছরের শেষে এসে দেখা যায়, প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে ট্রাম্প ৭ হাজার ৬শ’রও বেশি মিথ্যা বলেছেন, অর্থাৎ দিনে গড়ে ১৫টিরও বেশি মিথ্যা ভাষণ করেছেন।

এ মাসেই এক জরিপ থেকে জানা যায়, প্রতি ১০ জনে তিনজনেরও কম আমেরিকান তার সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত মিথ্যাগুলো বিশ্বাস করেন। ট্রাম্পের কট্টর সমর্থকদের মধ্যে প্রতি ছয়জনে একজন তার অনেক মিথ্যা দাবি বিশ্বাস করলেও তার সব কথা বিশ্বাস করেন না।

ওয়াশিংটন পোস্ট জানায়, নভেম্বর মাসের একটি জরিপে ৫৮ শতাংশ ভোটার বলেন, ট্রাম্প অসৎ। অন্যদিকে ৩৬ শতাংশ মনে করেন, তিনি অসৎ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আগের বছর ট্রাম্প মাসে ২০০-২৫০টি মিথ্যা বলতেন, ২০১৮ সালেও ট্রাম্প সে হারেই মিথ্যা বলে যাচ্ছিলেন। কিন্তু, জুন মাসে এর পরিমাণ হঠাৎ ব্যাপক হারে বেড়ে যায়। ওই সময় মধ্যবর্তী নির্বাচনের কৌশল পরিবর্তন করেন।

জুন-জুলাই মাসে তিনি ৫০০টিরও বেশি মিথ্যা বলেন এবং আগস্টে এই সংখ্যা গিয়ে পৌঁছায় প্রায় ৬শ’। অক্টোবর মাসে তার মিথ্যার সংখ্যা ১২শ’ ছাড়িয়ে যায় এবং নভেম্বরে এটা নেমে আসে ৯শ’তে। ডিসেম্বর মাসে তার মিথ্যার পরিমাণ আবারও ২০০-২৫০তে নেমে আসে।

এমআর/আইএম