ট্রাক চালকদেরও কর্মবিরতির ডাক!

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ট্রাক চালকদেরও কর্মবিরতির ডাক!

পরিবর্তন প্রতিবেদক: ১:০৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৯, ২০১৯

ট্রাক চালকদেরও কর্মবিরতির ডাক!

নতুন সড়ক পরিবহন আইন স্থগিত করে তা সংশোধনের দাবি জানিয়ে বুধবার সকাল থেকে সারাদেশে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতির ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর তেজগাঁও ট্রাক স্ট্যান্ডে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচির ঘোষণা দেয় সংগঠনটি।

সংগঠনের সভাপতি তাজুল ইসলাম বলেন, ‘নতুন আইনে ট্রাক-কাভার্ডভ্যান চালকরা গাড়ি চালাবেন না। কিছু হলেই জরিমানা করা হবে ২৫ হাজার টাকা, মামলা করা হবে। আবার চালকের লাইসেন্সের ওপর পয়েন্টও কাটা হবে। এসব কারণে চালকরা আর গাড়ি চালাবেন না।

তিনি বলেন, 'সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮' স্থগিত করে তা সংশোধনের জন্য ৯ দফা দাবিতে আগামীকাল বুধবার সকাল ৬টা থেকে আমরা অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি পালন করবো।

তাজুল ইসলাম আরো বলেন, যে আইনটা হয়েছে তা বাংলাদেশে চলে না। কারণ এ আইন করার আগে সব ধরনের অবকাঠামো ঠিক করা উচিত ছিল। রাস্তাঘাট ঠিক নাই, আপনি আইন করলে তো সামঞ্জস্যপূর্ণ হয় না।

‘হাল্কা যানবাহনের লাইসেন্স দিয়ে অধিকাংশরাই বড় গাড়ি চালাচ্ছেন। এটা কেউ বলে না যে, যারা বড় গাড়ি চালাচ্ছে তাদের বড় গাড়ির লাইসেন্সই দেয়ার কথা। কিন্তু বিআরটিএ থেকে তাদের দেয়া হচ্ছে হাল্কা যানবাহনের লাইসেন্স। সেই লাইসেন্স নিয়ে একজন ড্রাইভার রাস্তায় নামবে আর জরিমানা করা হবে ২৫ হাজার টাকা। একজন চালক কি অত টাকা বেতন পায় এই বাজারে? তাহলে সেই চালক কীভাবে ওই জরিমানা দেবে?’ বলেন এই পরিবহন শ্রমিক নেতা।

তিনি বলেন, ‘আমরা এসবের সমন্বয় দাবি করেছি কিন্তু পাইনি। এরই মধ্যে নতুন সড়ক আইন কার্যকর ও প্রয়োগ শুরুও হয়েছে। তাই ট্রাক-কাভার্ডভ্যান চালকরা আর গাড়ি চালাবেন না। আগামীকাল সকাল থেকে কর্মবিরতি শুরু হবে।

এর আগে গত ১ নভেম্বর থেকে নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকরের ঘোষণা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। ১৭ দিন প্রচার প্রচারণার পর গতকাল সোমবার থেকে আইনটি প্রয়োগ শুরু করে পরিবহন নিয়ন্ত্রণ সংস্থা (বিআরটিএ)। প্রথম দিনেই রাজধানীতে আইন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে ৮৮টি মামলা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ওএস/পিএসএস

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও