‘বিশ্বের ১৭৩ দেশে কর্মী পাঠানো হয়েছে’

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

‘বিশ্বের ১৭৩ দেশে কর্মী পাঠানো হয়েছে’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৮:৪৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১২, ২০১৯

‘বিশ্বের ১৭৩ দেশে কর্মী পাঠানো হয়েছে’

বাংলাদেশ থেকে এ পর্যন্ত বিশ্বের ১৭৩টি দেশে কর্মী পাঠানো হয়েছে এবং এসব দেশে বাংলাদেশি কর্মীরা প্রফেশনাল দক্ষ, আধা দক্ষ ও সর্বদক্ষ এই চার ক্যাটাগরিতে কাজ করেছ বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে নওগাঁ-৬ আসনের সংসদ সদস্য মো. ইসরাফিল আলমের তারকা চিহ্নিত প্রশ্ন ১৪৬নং প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য দেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে বাজেটে প্রধানমন্ত্রী রেমিটেন্সের ওপর যে যুগান্তকারী ২ ভাগ প্রণোদনা সুবিধা দিয়েছেন। ২০১৯-২০ অর্থবছরে প্রথম ত্রৈমাসিকে মোট রেমিন্টেন্সের প্রবাহ হয়েছে ৪৫১০.৮৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।  ২০১৮-১৯ অর্থবছরে একই ত্রৈমাসিকে ছিল ৩৮৬৮.৮৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। অর্থাৎ ডলারের হিসেবে রেমিটেন্স প্রবাহ ১৬. ৩১৭ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে।’

মন্ত্রী আরও জানান, ‘অভিবাসী কর্মীদের সুরাক্ষার জন্য আইন ২০১৩ প্রণয়ন ও সেবা প্রদানের জন্য ২৯টি শ্রম কল্যাণ উইং প্রতিষ্ঠা, অভিবাসন কর্মী ঝুঁকির প্রেক্ষিতে বীমা পরিকর ও নীতিমালা প্রণয়ণ, মহিলাকর্মীদের নিরাপত্তার জন্য ৬টি সেফ হোম প্রতিষ্ঠা, নারী কর্মীদের যে কোনো সমস্যা সর্ম্পকে অবহিতকরণ ও প্রতিকার পাওয়ার জন্য বিএমএটিতে নারীকর্মীর অভিযোগ ব্যবস্থাপনা সেল গঠন করা হয়ছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘সমস্যা সর্ম্পকে অবহিতকরণ ও প্রতিকার পাওয়ার জন্য প্রবাসবন্ধু কল সেন্টার  চালু, শ্রম উইংয়ের মাধ্যমে বিদেশে কর্মরত বাংলাদেশী কর্মীদের সার্বিক কল্যাণসহ বিশেষ ক্ষেত্রে আইনজীবী নিয়োগের মাধ্যমে আইনগত সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে, প্রবাসী কর্মীর মেধাবী সন্তানদের মোবাইল ব্যাংকিংক এর মাধ্যমে বৃত্তির অর্থ প্রেরণ করা হচ্ছে; বিইএফটিএন এর মাধ্যমে প্রবাসে মৃত কর্মীর পরিসরের সদস্যদের ব্যাংক একাউন্টে সরাসরি আর্থিক অনুদান , ক্ষতিপূরণ, বকেয়া বেতন, সার্ভিস বেনিফিট ও ইন্সুরেন্সের অর্থ পাঠানো হচ্ছে।’

ইমরান আহমদ বলেন,  ‘প্রবাসী কর্মীর সন্তানের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তিতে সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে; অভিবাসী বাংলাদেশি ও অনিবন্ধিত প্রবাসী বাংলাদেশিদের ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের ডাটাবেইজের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে; অভিবাসী কর্মীদের শ্রম অভিবাসন পরিক্রমার চারটি স্তর, অর্থাৎ প্রাকবহির্গমনকাল, বহির্গমনকাল, গন্তব্য দেশে অবস্থানকাল এবং দেশে প্রত্যাবর্তনকালকে বিবেচনায় পুনঃএকত্রীকরণ কার্যক্রম গ্রহণ করা হযেছে।

এমএইচ/এইচআর

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও