ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১৬ জনের পরিচয় মিলেছে

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১৬ জনের পরিচয় মিলেছে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ৪:০৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১২, ২০১৯

ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১৬ জনের পরিচয় মিলেছে

ঢাকা-চট্টগ্রাম ও চট্টগ্রাম-সিলেট রেলপথের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার মন্দবাগে উদয়ন এক্সপ্রেস ও তুর্ণা এক্সপ্রেসের মধ্যে ভয়াবহ সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ জনে।

এরমধ্যে দুর্ঘটনাস্থলে ১০ জন, সদর হাসপাতালে দুজন, কসবায় তিনজন ও কুমিল্লায় মারা গেছে একজন।

দুর্ঘটনাস্থলের কাছাকাছি বায়েক শিক্ষা সদন উচ্চ বিদ্যালয়ে অস্থায়ী ক্যাম্পে ১০টি মরদেহ রাখা হয়েছে।

নিহত ১৬ জনের পরিচয় সনাক্ত করেছে প্রশাসন। নিহতরা হলেন মৌলভীবাজারের জাহেদা খাতুন (৩০), চাঁদপুরের কুলসুম বেগম (৩০), হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ের আল-আমিন (৩০), হবিগঞ্জের আনোয়ারপুরের আলী মোহাম্মদ ইউসুফ (৩২), চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের পশ্চিম রাজারগাঁওয়ের মুজিবুল রহমান (৫৫), হবিগঞ্জের ভোল্লার ইয়াছিন আরাফাত (১২), চুনারুরঘাটের তিরেরগাঁওয়ের সুজন আহমেদ (২৪), হবিগঞ্জের বানিচংয়ের আদিবা (২), হবীগঞ্জের বানিয়াচংয়ের সোহামনি (৩), চাঁদপুরের উত্তর বালিয়ার ফারজানা (১৫), চাঁদপুরের হাইমচরের কাকলী (২০), হবিগঞ্জের রিপন মিয়া (২৫), চাঁদপুরের হাইমচরের মরিয়ম (৪), নোয়াখালীর মাইজদির রবি হরিজন (২৩), চাঁদপুর সদরের ফারজানা (১৫), হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের পিয়ারা বেগম (৩২)।

তাছাড়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে ৪২ জনকে ভর্তি করা হয়। এরই মাঝে অনেক আহতের স্বজনরা তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে গেছেন।

ঘটনাস্থলে পুলিশ, সেনাবাহিনী, বিজিবি, ফায়ার সার্ভিসের সদস্য ও স্থানীয়রা উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

রেললাইন থেকে বগি সরানোর কাজ করছে দু’টি রিলিফ ট্রেন। দুর্ঘটনার কারণ তদন্তে এখন পর্যন্ত পাঁচটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এআর/এইচআর

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও