রাঙ্গার বিরুদ্ধে মামলা করতে চান নূর হোসেনের মা (ভিডিও)

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

রাঙ্গার বিরুদ্ধে মামলা করতে চান নূর হোসেনের মা (ভিডিও)

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৫:০৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১১, ২০১৯

নব্বইয়ের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের শহীদ নূর হোসেনের মা মরিয়ম বিবি বলেছেন, নূর হোসেন রাজপথে বড়লোক হওয়ার জন্য নামে নাই। দেশের জন্য, জনগণের জন্য সে গণতন্ত্রের গণতান্ত্রিক আন্দোলন করেছে। নূর হোসেন আমার একার ছেলে নয়, সে দেশের ছেলে, দেশের জনগণের ছেলে।

তিনি বলেছেন, আমার শহীদ ছেলেকে নেশাখোর বলেছে মশিউর রহমান রাঙ্গা, আমি এর বিচার জনগণের কাছে চাই। আমার ছেলে নেশাখোর হলে দেশের জন্য জীবন দিত না।

সোমবার জাতীয় পার্টির সেক্রেটারি মশিউর রহমান রাঙ্গার বক্তব্যের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

মসিউর রহমান রাঙ্গার দেওয়া এই বক্তব্য প্রত্যাহার এবং জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানান নূর হোসেনের মা মরিয়ম বিবি।

তিনি বলেন, তার এই বক্তব্যের বিচার করতে হবে।

তিনি বলেন, ত্রিশ বছর আগে আমার এই ছেলেটি গণতন্ত্রের জন্য আন্দোলন করতে গিয়ে শহীদ হয়েছে। আর এই ত্রিশ বছর পর এ ধরনের অহেতুক কথাবার্তা তিনি কেন বললেন? আমি মা হিসেবে সাক্ষী দিতে চাই আমার ছেলে পাগল অথবা নেশাখোর ছিলনা।

সেসময় ইয়াবা অথবা ফেনসিডিলও ছিল না অথচ তার ওপর এ ধরনের অবিচার করা হচ্ছে।

আপনার শহীদ ছেলের বিরুদ্ধে এ ধরনের বক্তব্যের মানহানি মামলা করবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তার মা মরিয়ম বিবি বলেন, মামলা করা দরকার। বিষয়টি নিয়ে আমরা পারিবারিকভাবে আলোচনা করবো এরপর সিদ্ধান্ত জানাবো। তবে আমি ব্যক্তিগতভাবে মামলা করার পক্ষে।

এসময় শহীদ নূর হোসেনের বড় ভাই আলী হোসেন বলেন, আজ আমার ভাই দেশের জন্য শহীদ হয়েছে। তার বিরুদ্ধে এ ধরনের অবান্তর কথা বলা হচ্ছে।

আলী হোসেন কান্নাবিজড়িত কণ্ঠে বলেন, এই কথা শোনার পর আমার মা সারারাত কেঁদেছেন। ৩৩ বছর আগে আমার ভাই শহীদ হয়েছেন। আমার ভাইকে এরআগেও এরশাদ সাহেব পাগল বলেছিল। পরে এরশাদ সাহেব আমাদের কাছে, আমার বাবার কাছে ক্ষমা চেয়েছিল, সংসদেও ক্ষমা চেয়েছে। 

আলী হোসেন বলেন, আমরা আজ গরীব বলেই আমাদের বিরুদ্ধে এ ধরনের কথা বলার সাহস মশিউর রহমান রাঙ্গা সাহেব পেলেন। আমি আপনাদের মাধ্যমে জনগণের কাছে বিচার চাই।

তিনি বলেন, আমরা তো কখনো কারো কাছে গাড়ি অথবা বাড়ি চাইনি। আমরা কারো কাছে হাত পাতিনি। আমরা নিজেরা অনেক কষ্টে কর্ম করে খাই, তাই বলে আমাদের শহীদ ভাইকে নিয়ে এ ধরনের কথা আপনারা কেন বলবেন?

আলী হোসেন বলেন, আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে এর বিচার চাই। অবিলম্বে মসিউর রহমান রাঙ্গার সংসদ সদস্য পদ বাতিল চাই। সারাদেশের জনগণকে মশিউর রহমান রাঙ্গাকে বয়কটের আহ্বান জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, গেল বছর রাঙ্গা সাহেব মন্ত্রী ছিলেন তাই তিনি এ ধরনের কথা বলেননি। তিনি মন্ত্রিত্ব না পেয়ে তার মাথা খারাপ হয়ে গেছে, আমরা বলতে চাই মসিউর রহমান রাঙ্গা নিজেই ইয়াবাখোর।

তিনি বলেন, আমরা কয়টি ভাই আছি তারা একটি সিগারেটও খাই না। অথচ আমার ৩৩ বছর আগের শহীদ হওয়া ভাইকে মশিউর রহমান রাঙ্গা সাহেব ইয়াবাখোর বলে আখ্যায়িত করলেন. এটা আমাদের জন্য অনেক কষ্টের।

আলী হোসেন বলেন, এই বক্তব্যের বিচার না হওয়া পর্যন্ত আমরা প্রেসক্লাবের সামনে থেকে আমাদের পরিবারকে নিয়ে অবস্থান করবো।

অবস্থান কর্মসূচিতে উপস্থিত আছেন নূর হোসেনের আরো দুই ভাই দেলোয়ার হোসেন এবং আনোয়ার হোসেন। বোন শাহানা বেগম সহ ভাগিনা- ভাতিজি সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা।

এসএস

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও