‘অন্যায়-অবিচার বরদাস্ত করা হবে না’ 

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

‘অন্যায়-অবিচার বরদাস্ত করা হবে না’ 

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৮:৫৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০১৯

‘অন্যায়-অবিচার বরদাস্ত করা হবে না’ 

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘সবাই ভালো থাকুক, স্বচ্ছল থাকুক। অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বী হোক, সেটা আমরা চাই। কিন্তু অন্যায় ভাবে যদি কেউ কিছু করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া একান্তভাবে প্রয়োজন বলে আমি মনে করি।’

এসময় কোনো অন্যায়-অবিচার বরদাস্ত করা হবে না বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

রোববার প্রধানমন্ত্রীর সরকারী বাসভবন গণভবনে আওয়ামী যুবলীগের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকপূর্ব সূচনা বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের যতগুলো সহযোগী সংগঠন আছে, তাদের সকলের যেন একে একে সম্মেলন হয়, সেই পদক্ষেপ নিয়েছি। আমরা তারিখ নির্ধারণ করে দিয়েছি। কারণ অনেক সময় নানা কারণে সম্মেলন দীর্ঘায়িত হয়ে যায়।

তিনি বলেন, ‘আমরা দেশকে যখন এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি, আমরা সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ, মাদক এবং দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখবো। এই ক্ষেত্রে যেই অপরাধী হবে, তার কোনো ক্ষমা নেই। তাদের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নেব। কারণ আমরা যখন দেশকে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাই, স্বাভাবিক ভাবেই কিছু মানুষের ভেতরে একটা লোভের সৃষ্টি হয়। যার ফলাফল আমাদের সমাজটাকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যায়। এই ধরনের অন্যায়-অবিচার বরদাস্ত করা হবে না।’

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘যখন একটা পরিবর্তন আসে তখন দেখা যায় কিছু মানুষ হঠাৎ রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ হয়ে যায়। কিছু মানুষ গরিব থেকে যায়। এই আয় বৈষম্যটা যেন না থাকে সে দিকে দৃষ্টি রেখে আমরা একেবারে গ্রামের তৃণমূল মানুষেরও যেন আয় বৃদ্ধি পায়, তারাও যেন স্বচ্ছলভাবে থাকে, তারাও যেন সুন্দরভাবে বাচতে পারে, সে ব্যবস্থা করবো। অর্থাৎ সমাজের সর্বস্তরের মানুষের অর্থনৈতিক উন্নতি এটাই আমাদের লক্ষ্য। সেই লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

এসইউজে/এসবি

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও