দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলবেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলবেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৩:৫১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০১৯

দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলবেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিয়ন্ত্রণ না আসা পর্যন্ত ক্যাসিনো, টেন্ডারবাজিসহ সব ধরনের দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসি) আয়োজিত ‘সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বর্তমান সরকার এগিয়ে চলছে’ শীর্ষক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অভিযান অব্যাহত থাকবে। এটাকে শুদ্ধি অভিযান বলব না, আমি বলব দুর্নীতির বিরুদ্ধে, অনিয়মের বিরুদ্ধে অভিযান। দুর্নীতিবাজ, দখলবাজরা দুর্নীতি, দখলের চিন্তা যতদিন করবে ততদিন এই অভিযান চলবে।

ক্যাসিনো ও টেন্ডারবাজির পর কোন খাতে অভিযান পরিচালনা রয়েছে, এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, কোনো সেক্টরকে আমরা লক্ষ্য করছি না। আমরা যেখানে দেখছি অনিয়ম হচ্ছে, আইন অমান্য হচ্ছে, দুর্নীতি হচ্ছে, সেই জায়গায়ই আমরা দেখছি। আমরা কোনো এলাকাকে টার্গেট করছি না।

প্রধানমন্ত্রী অনিয়ম এবং দুর্নীতিবাজদের কাউকে ছাড় দিচ্ছেন না জানিয়ে বলেন, আমরা অবশ্যই টেন্ডারবাজ, দুর্নীতিবাজদের কন্ট্রোলে নিয়ে আসব।

মাদকের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী জিরো টলারেন্সের নীতি ঘোষণা করেছেন। সেই নীতিতে সরকার রয়েছে। মাদকের বিরুদ্ধে অভিযানও অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, আমরা গত টার্মে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করেছি। জঙ্গিবাদ এবং সন্ত্রাসবাদ নির্মূল হয়েছে।

নতুন প্রজন্মের কাছে আহ্বান রেখে আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, আমরা চাই না আমাদের নতুন প্রজন্ম হারিয়ে যাক। তারা যদি ভুল পথে পা বাড়ায় তাহলে কিন্তু হারিয়ে যাবে।

সবার সহযোগিতা পেলে সুশাসন খুব শিগগির প্রতিষ্ঠিত করা যাবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, মন্ত্রণালয়ের যে দায়িত্ব রয়েছে তা রুটিন মাফিক করে যাচ্ছি আমরা। ধীরে ধীরে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছে যাবে এমনটি আশাবাদ ব্যক্ত করেন মন্ত্রী।

অন্যদিকে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের চার্জশিট শিগগিরই দাখিল করা হবে বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ। প্রতিযোগিতায় সরকারি দল হিসেবে অংশগ্রহণ করে বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি ও বিরোধীদলের ভূমিকায় ছিল ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এমকে/এসবি

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও