আবরার হত্যার সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

আবরার হত্যার সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৭:৪৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৯, ২০১৯

আবরার হত্যার সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

আবরার হত্যাকে ‘অমানবিক’ উল্লেখ করে এ ঘটনায় জড়িতদের দলীয় পরিচয় না দেখে অপরাধী হিসেবে প্রাপ্ত সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার গণভবনে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৪তম অধিবেশন এবং ভারত সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কেউ অপরাধ করলে আমি দল দেখি না। অপরাধী অপরাধীই। আবরার হত্যার বিষয়টি শুনে সকালেই আমি পুলিশকে আলামত সংগ্রহ করতে বলেছি। তারা ফুটেজও সংগ্রহ করেছে। এগুলো নিয়ে আসার সময় তাদের ঘেরাও করেছে। তারা বলছে, পুলিশ নাকি সেটা নষ্ট করে ফেলবে, অথচ পুলিশ আলামত সংগ্রহ করছে অপরাধীদের ধরার জন্য।’

তিনি বলেন, ‘এখানে কে ছাত্রলীগ, কে কী, আমি বিবেচনা করিনি। অবশ্য, এটা ঠিক ক্ষমতায় থাকলে অনেকের মধ্যে শক্তি চলে আসে। আবার কেউ কেউ সব সময় পাওয়ার পার্টি করে। আমি এগুলো দেখি নি, আমি সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নিয়েছি। ছাত্রলীগকেও ডেকে নির্দেশনা দিয়েছি।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘একটা অমানবিক ঘটনা ঘটেছে। এর বিচার আমাদের করতে হবে, এটাই বুঝি। ফুটেজ দেখে অপরাধীদের ধরা হয়েছে। তাদের বিচারের মুখোমুখি করা হচ্ছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘কী অমানবিক! ২১ বছরের মেধাবী ছেলেটাকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলল। পোস্টমর্টেম রিপোর্টে আপনারা দেখেছেন? বাইরে কোনো ইনজুরি নেই, ভেতরে সব ইনজুরি। কত জঘন্য? বাপ-মা কত কষ্ট করে মানুষ করে এ পর্যন্ত নিয়ে আসছে। আমি কাউকে ছাড় দেবো না। সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করবো।’

তিনি আরো বলেন, ‘যারা এগুলো নিয়ে এত কথা বলছে, তারা কী করেছে? তাদের (জিয়া-খালেদা) সময়ে ক্যাম্পসগুলোতে অস্ত্রের ঝনঝনানি ছিল। সারাদেশের ক্যাম্পসগুলো অস্ত্রবাজদের দখলে ছিলো। আমি ধীরে ধীরে এগুলোর পরিবর্তন এনেছি। আমার কাছে অন্যায়কারী-অপরাধীর দলীয় পরিচয় মুখ্য নয়। অপরাধ করলে তার বিচার হবে।’

এসময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমসহ মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, সরকারের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা ও আওয়ামী লীগ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এসইউজে/এইচআর

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও