বাংলাদেশে-চায়না এক্সিবিশন সেন্টার ২০২০ সালের ডিসেম্বরে

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

বাংলাদেশে-চায়না এক্সিবিশন সেন্টার ২০২০ সালের ডিসেম্বরে

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৬:৪২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯

বাংলাদেশে-চায়না এক্সিবিশন সেন্টার ২০২০ সালের ডিসেম্বরে

রাজধানীর পূর্বাঞ্চলে নির্মাণাধীন বাংলাদেশে-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারটি ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

রোববার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ৪র্থ বৈঠকে এ কথা জানানো হয়। 

সংসদীয় কমিটিতে আরো জানানো হয়, প্রকল্পে মোট বাজেট বরাদ্দ ১ হাজার তিনশ ৩ কোটি ৫০ লাখ টাকা। এরমধ্যে চীন সরকার কর্তৃক প্রদত্ত অনুদান বাবদ ৬৫০ কোটি ৭০ লাখ টাকা, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো নিজস্ব অর্থায়নে ২০২ কোটি ৮০ লাখ টাকা এবং সরকারি অনুদান ৪৭৫ কোটি টাকা।

বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য আওয়ামী লীগের বর্ষীয়ান নেতা তোফায়েল আহমদ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, এছাড়া জাতীয় রপ্তানি হাউস নামক আরেকটি প্রকল্পের ডিপিপি (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা) করার জন্য পরামর্শক ফার্ম নিয়োগ করা হয়েছে। ওই প্রকল্পের ব্যয় রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো নিজস্ব অর্থায়নে সম্পন্ন হবে বলে পরিচালনার পর্ষদে সিদ্ধান্ত হয়েছে। কমিটি বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ করার তাগিদ দিয়েছে।

বৈঠকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় উপস্থিত কার্যপত্র থেকে জানা যায়, ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় আয়োজনে ব্যয় হয়েছে ৩২ কোটি ৯০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৪৮টা। গণপূর্ত অধিদপ্তর (পূর্ত ও বিদ্যুতায়ন), ডিপিডিসি (বিদ্যুৎ ও বিদুৎ বিলসহ), নিরাপত্তা, আইন-শৃঙ্খলা ও ট্রাফিক উপ-কমিটি, প্রচার ও প্রকাশনা, মুদ্রণ ও সুভিনিয়র উপ-কমিটি, সিরিমনিজ উপকমিটি, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মেলা সেল, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর মেলা সচিবালয়, মেলা ব্যবস্থাপনার কার্যাবলী, বঙ্গবন্ধুর প্যাভিলিয়ন নির্মাণ এবং ভ্যাট, আয়কর ও প্রমোদ কর ইত্যাদি খাতে এই টাকা ব্যয় হয়। আর স্থিতির পরিমাণ ৪২ কোটি ৫ লাখ৫৫ হাজার ৩৫৩ টাকা।

কমিটি রেজিস্টার্ড জয়েন্ট স্টক কোম্পানি কর্তৃক কোম্পানি ট্রেড অর্গানাইজেশন, পার্টনারশীপ ফার্মের নিবন্ধন প্রদান, ছাড়পত্র প্রদান প্রভৃতি ক্ষেত্রে বাস্তবতার নিরিখে কাজ করতে সুপারিশ করে। ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ ( টিসিবির) কার্যক্রম আরো শক্তিশালীর সুপারিশ করে কমিটি। এজন্য মন্ত্রণালয়ের সাথে প্রয়োজনীয় পরামর্শ করারও সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি তোফায়েল আহমেদের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী, মোহাম্মদ হাছান ইমাম খাঁন এবং সুলতানা নাদিরা বৈঠকে অংশ নেন।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, ট্যারিফ কমিশনের চেয়রম্যান, টিসিবির চেয়ারম্যানসহ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

এইচকে/এইচআর

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও