বন্যা কত জেলায়, জানালেন প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ২৫ আগস্ট, ২০১৯ | 2 0 1

বন্যা কত জেলায়, জানালেন প্রতিমন্ত্রী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ১২:২২ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০১৯

বন্যা কত জেলায়, জানালেন প্রতিমন্ত্রী

শুরুতে ১০টি জেলা বন্যাকবলিত হলেও খুবই দ্রুত সময়ে তা ২০টিতে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে ডিসি সম্মেলনের তৃতীয় দিনের প্রথম কার্যঅধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা জানান।

বন্যা পরিস্থিতি এখনও আশঙ্কাজনক নয় উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আবহাওয়াবিদরা আরও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছেন। চীন, নেপাল ও ভারতে প্রচুর বৃষ্টি হচ্ছে। এসব দেশের পরিস্থিতি আরও খারাপ হলে, ব্রহ্মপুত্র ও যমুনার পানি বাড়বে। তখন আমাদের বন্যা পরিস্থিতির আরেকটু অবনতি হতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় আমরা আগাম প্রস্তুতি রেখেছি। মাঠকর্মীরা প্রস্তুত রয়েছেন। তারা আক্রান্তদের নিরাপদ আশ্রয়কেন্দ্রে নিচ্ছেন। সেখানে খাবার, বিশুদ্ধ পানি, চিকিৎসাসহ সবকিছুর ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।’

এনামুর রহমান বলেন, ‘প্রথমে ১০টি জেলায় বন্যা ছিল। দু’দিন পরে ১৫টি হয়। আর গতকাল সোমবার পর্যন্ত মোট ২০টি জেলা বন্যাকবলিত হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘প্রত্যেক জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি রয়েছে। কমিটিকে দুর্যোগ মোকাবেলায় কাজ করার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।’

প্রতিমন্ত্রী জানান, বন্যাকবলিত জেলায় এখন পর্যন্ত ৭০০ মেট্রিকটন চাল, প্রত্যেক জেলায় ৪ হাজার প্যাকেট শুকনা খাবার পাঠানো হয়েছে। শুরুতে ২ কোটি ৯৩ লাখ টাকা হলেও পরে গতকাল সোমবার আরও ৩৭ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। শিশুখাদ্যের জন্য ১ লাখ টাকা ও গো-খাদ্যের জন্য ১ লাখ টাকা করে প্রতি জেলায় পাঠানো হয়েছে।

এ ছাড়া প্রতি জেলায় ৫০০টি করে তাবু পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ডিসি সম্মেলন সম্পর্কে এনামুর রহমান বলেন, ‘সরকার গৃহহীনদের জন্য দুর্যোগসহনীয় ঘরের কার্যক্রম শুরু করেছে। প্রথম ধাপে ১১ হাজার ৬০৪টি ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। চলতি অর্থবছরে আরও ২৩ হাজার ঘর করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘বজ্রপাতে মৃত্যু কমানোর জন্য বজ্রপাত নিরোধক টাওয়ার বসানোর প্রস্তাব করেছেন ডিসিরা। দুর্যোগ ও বন্যার কাজের জন্য মোটর বোট বাড়ানো এবং সারা বছর জ্বালানি নিশ্চিতের পরামর্শ দিয়েছেন।’

এইচকে/আইএম

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও