বিড়ি-সিগারেটের দাম বাড়বে

ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | 2 0 1

বিড়ি-সিগারেটের দাম বাড়বে

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৬:৫৭ অপরাহ্ণ, জুন ১৩, ২০১৯

বিড়ি-সিগারেটের দাম বাড়বে

২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে বিড়ি, সিগারেট, জর্দা ও গুলসহ সব ধরনের তামাকজাত পণ্যের দাম বাড়ানো হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় সংসদে এসব পণ্যের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

প্রস্তাবে আগামী বছর নিম্নতম স্তরের ১০ শলাকার সিগারেটের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৭ টাকা। সেখানে সম্পূরক শুল্ক ধরা হয়েছে ৫৫ শতাংশ। নিম্নতম স্তরের ১০ শলাকার সিগারেটের দাম আছে ৩৫ টাকা ও সম্পূরক শুল্ক ৫৫ শতাংশ।

মধ্যম স্তরের ১০ শলাকার সিগারেটের মূল্য ধরা হয়েছে ৬৩ টকা এবং সম্পূরক শুল্ক হবে ৬৫ শতাংশ। বর্তমানে মধ্যম স্তরের ১০ শলাকার সিগারেটের মূল্য ৪৮ টাকা এবং সম্পূরক শুল্ক ৬৫ শতাংশ।

উচ্চ স্তরের ১০ শলাকার সিগারেটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৯৩ টাকা ও ১২৩ টাকা। এখানে সম্পূরক শুল্ক হবে ৬৫ শতাংশ। বর্তমানে উচ্চ স্তরের ১০ শলাকার সিগারেটের দাম ৭৫ ও ১০৫ টাকা। এখানে সম্পূরক শুল্ক ৬৫ শতাংশ।

ফিল্টারবিহীন ও ফিল্টারযুক্ত বিড়িতে সম্পূরক শুল্ক হার আগের মতোই যথাক্রমে ৩৫ ও ৪০ শতাংশ থাকবে। বিড়ির ট্যারিফ মূল্য উঠিয়ে দেওয়া হবে।

ফিল্টারবিহীন ২৫ শলাকার প্যাকেটের দাম ১৪ টাকা এবং ফিল্টারযুক্ত ২০ শলাকার প্যাকেটের দাম ১৫ টাকা থেকে ১৭ টাকা নির্ধারণের প্রস্তাব করা হয়েছে বাজেটে। এর মধ্যে করও যুক্ত থাকবে। এই দাম ১ জুন থেকেই কার্যকর করা হবে।

অন্যদিকে স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর বিড়ি সিগারেটের মতো ভয়াবহ আরেকটি পণ্য হলো জর্দা ও গুল। তাই এর ব্যবহার কমানোর জন্য প্রতি ১০ গ্রাম জর্দার দাম ৩০ টাকা ও প্রতি ১০ গ্রাম গুলের দাম ১৫ টাকা করা হয়েছে। পাশাপাশি দুটোরই সম্পূরক শুল্ক ৫০ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে।

এফএ/এসবি

 

জাতীয়: আরও পড়ুন

আরও