ওবায়দুল কাদের ছাড়া সড়কে শৃঙ্খলা দেখবে কে?

ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯ | ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

ওবায়দুল কাদের ছাড়া সড়কে শৃঙ্খলা দেখবে কে?

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ২:১৪ অপরাহ্ণ, মে ১৩, ২০১৯

ওবায়দুল কাদের ছাড়া সড়কে শৃঙ্খলা দেখবে কে?

ঈদ এলেই সড়কের শৃঙ্খলা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন অংশীজনরা। সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের ঘুম হারাম হয়ে যায় অবস্থা। তটস্থ থাকেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা, কারণ খোদ মন্ত্রী সড়কে। সওজের প্রকৌশলী থেকে শুরু করে নানা পদস্থ কর্মকর্তাদের ওএসডি, ভর্ৎসনা আরও কত কী?

গত কয়েক ঈদে টেলিভিশনসহ মিডিয়ার কল্যাণে মানুষ এ চিত্র দেখেছে। যার কারণে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীকে মানুষ ‘ফাটাকেষ্টও বলে। এবারের ঈদে ফাটাকেষ্ট খ্যাত সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের নেই। তিনি সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন। তার অবর্তমানে সড়কে শৃঙ্খলা দেখবে কে?

ঈদে ঘরে ফেরা মানুষের চাপে সড়কে হ-য-ব-র-ল অবস্থা এদেশে সব সময়ের। অতিরিক্ত ভাড়া ও যাত্রী বহন, যানজট, খানাখন্দ সড়ক এবং দুর্ঘটনাসহ নানা নৈরাজ্য এই সেক্টরে নিত্যদিনের ব্যাধি। সড়কমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের হাকডাক ও সড়ক পরিদর্শনের মধ্য দিয়ে কিছুটা নিয়ন্ত্রণ করেন।

পুরোপুরি সমাধান না করা গেলেও মন্ত্রীর দর্শনে মানুষের আস্থা বাড়ে। অভিযোগ থাকলেও তাকে স্পটে দেখে সন্তুষ্ট থাকেন মানুষেরা। কিন্তু এবার কী হবে, এমন ভাবনা অমূলক নয়।

মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগের দায়িত্বে নিয়োজিত সরকারের উপ প্রধান তথ্য কর্মকর্তা আবু নাসের টিপু পরিবর্তন ডটকমকে জানান, অন্যান্য বারের মতো হয়ত এবার সড়কমন্ত্রী নেই। সড়ক পরিদর্শনে সাধারণ জনগণ যে কনফিডেন্স পেতেন সেটা হয়ত হবে না। তবে অন্যান্য সময়ের চেয়ে এবার সড়কের অবস্থা ভালো। ঘরমুখো মানুষের দুর্ভোগ তেমন হবে না। ঈদে যাত্রীদের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে আমরা সকল প্রস্তুতি নিয়েছি। আমাদের যাবতীয় কাজ সরাসরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তত্ত্বাবধানে হচ্ছে।  পাশাপাশি মন্ত্রীও সিঙ্গাপুর থেকে ফোনে খোঁজখবর রাখছেন।

সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সব সময়ের মতো এবারও ঈদ-উল-ফিতরে সড়ক-মহাসড়কে যাত্রী সাধারণের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে এক প্রস্তুতি সভা করেছে সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়। মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের না থাকলেও তার অবর্তমানে সচিব নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ সভা হয়। তিনি ওই বৈঠকে থেকেই ঈদের ৭দিন আগেই সড়ক মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজ শেষ করার নির্দেশ দেন। এছাড়াও ঈদের তিনদিন আগে মহাসড়কে ট্রাক-কাভার্ডভ্যান ও লরি বন্ধ রাখাসহ যাবতীয় নির্দেশনা দেন।

ইতিমধ্যে মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, ১৫ মে দেশের ফিরছেন ওবায়দুল কাদের। তবে তিনি আসলেই আগের মতো সড়কে দৌড়াদৌড়ি করতে পারবেন না। তাকে রেস্টে থাকতে হবে আরও বেশ কয়েকদিন। তবে তিনি সবকিছু তদারকি করবেন।

এসইউজে/এএসটি