এবারই ঢাকায় হবে হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯ | ১২ বৈশাখ ১৪২৬

এবারই ঢাকায় হবে হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সচিবালয় প্রতিবেদক ৪:০২ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০১৯

এবারই ঢাকায় হবে হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

চলতি বছরই বাংলাদেশি হজযাত্রীদের সৌদি আরবের বিমানবন্দরের পরিবর্তে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন কার্যক্রম সম্পন্ন করা সম্ভব হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ।

রোববার সকালে সচিবালয়ে নিজ দফতরে তিনি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, হজযাত্রীদের বাংলাদেশেই প্রি-এরাইভাল ইমিগ্রেশন কার্যক্রম সম্পন্ন করার উদ্দেশ্যে সৌদি আরবের একটি কারিগরি দল গত ২১ মার্চ বাংলাদেশে আসে। তারা ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক করে দেশে ফিরে গেছে। আগামী ৬ এপ্রিল এ বিষয়ে তাদের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদল বাংলাদেশে আসবে। আমরা আশা করছি এবারই ঢাকায় আমরা প্রি-এরাইভাল ইমিগ্রেশন কার্যক্রম চালু করতে পারব।

তিনি বলেন, ‘আমার নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল সৌদি সরকারের আমন্ত্রণে দেশটি সফর করে। সে সময়ে ঢাকাতেই ইমিগ্রেশনের ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানাই। ওই অনুরোধে সৌদি সরকার সাড়া দিচ্ছে।’

সম্প্রতি মিলাদ মাহফিল নিয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর একটি মন্তব্যের পর ওঠা বিতর্ক সম্পর্কে শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেন, ‘যারা এ ধরনের মিথ্যা অভিযোগ করছেন, তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। আমি এর নিন্দা জানাচ্ছি। আমি নিজ উদ্যোগেই মিলাদের আয়োজন করব। আমাকে হেয় করতেই কেউ কেউ মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছে।’

তিনি বলে, ‘বাংলাদেশের বর্তমান মুসলিম জনসংখ্যা আনুপাতিক হারে প্রাপ্ত অতিরিক্ত ২০ হাজার হজযাত্রীর কোটা বৃদ্ধি, চলতি বছর হজের সময় মিনায় অবস্থানকালে বাংলাদেশের হজ যাত্রীদের দ্বিতল খাট ব্যবহারে বাধ্য না করা, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রতিটি এজেন্সির সর্বনিম্ন হজযাত্রীর সংখ্যা ১৫০ থেকে একশ’তে কমিয়ে আনা এবং পবিত্র হজের দিনগুলোতে বাংলাদেশি হজযাত্রীদের জন্য মক্কা, মিনা, আরাফা, মুজদালেফা তথা মাশায়েরে মোকাদ্দেসিয় যাতায়াতের সুবিধার্থে পর্যাপ্ত ও উন্নত বাস সেবা নিশ্চিত করার অনুরোধ জানিয়েছি। সৌদি কর্তৃপক্ষ প্রায় সবগুলো দাবি পূরণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। বাংলাদেশের জন্য অতিরিক্ত ২০ হাজার হজ যাত্রী কোটা বৃদ্ধির বিষয়টি রয়েল কেবিনেটে উপস্থাপনের বিষয়ে সৌদি হজমন্ত্রী আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন।’

শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ জানান, সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের নিবন্ধন কার্যক্রম চলছে। আগামী ২৮ মার্চ পর্যন্ত এ কার্যক্রম চলবে। সরকারি ব্যবস্থাপনায় ইতোমধ্যে নিবন্ধন সম্পন্ন হয়েছে ৬ হাজার ৫৭ জনের। অবশিষ্ট আছে ৭৫৯ জন। বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় নিবন্ধন সম্পন্ন হয়েছে ৭৫ হাজার ৫২ জন এবং নিবন্ধনের জন্য অবশিষ্ট আছে ৪১ হাজার ৬৯৪ জন।

এসএস/আইএম