ফ্রেন্ডশিপ পাইপ লাইন নির্মাণকাজ উদ্বোধন শেখ হাসিনা-মোদির

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ | ৩ কার্তিক ১৪২৫

ফ্রেন্ডশিপ পাইপ লাইন নির্মাণকাজ উদ্বোধন শেখ হাসিনা-মোদির

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৬:২৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৮

ফ্রেন্ডশিপ পাইপ লাইন নির্মাণকাজ উদ্বোধন শেখ হাসিনা-মোদির

ফাইল ছবি

ভারত-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপ লাইন নির্মাণ প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

মঙ্গলবার বিকালে গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আর নয়াদিল্লি থেকে নরেন্দ্র মোদি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যৌথভাবে এ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

স্বল্পসময়ে বাংলাদেশে জ্বালানি তেল ডিজেল সরবরাহের জন্য প্রস্তাবিত পাইপ লাইনের পাঁচ কিলোমিটার ভারত ও অবশিষ্ট ১২৫ কিলোমিটার বাংলাদেশ অংশে নির্মাণ করা হবে। ভারতের আসাম রাজ্যের নুমালীগড় রিফাইনারী থেকে বাংলাদেশের দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর রেলহেড ওয়েল ডিপো পর্যন্ত ১৩০ কিলোমিটার ভূগর্ভস্থ এ পাইপ লাইন হবে।

পাইপ লাইন নির্মাণ প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে ৫২০ কোটি টাকা। এর মধ্যে গ্রান্ট ইন এইড প্রোগ্রামের আওতায় ভারত ৩০৩ কোটি রুপি ও বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন ১৫০ কোটি টাকা ব্যয় করবে। ১০ ইঞ্চি ব্যাসার্ধের পাইপ লাইনের তেল পরিবহন ক্ষমতা বার্ষিক ১০ লাখ মেট্রিক টন। আড়াই বছরের মধ্য প্রস্তাবিত ১৩০ কিমোমিটার দীর্ঘ এ পাইপ লাইন নির্মাণ করা হবে।

গত ২০১৬ সালের ১৯ মার্চ রেল ওয়াগনের মাধ্যমে নুমালী রিফাইনারি লিমিটেড থেকে ডিজেলের প্রথম চালান পার্বতীপুর রেলহেড ডিপোতে আনা হয়। ইতোপূর্বে সড়ক ও রেলপথে জ্বালানি তেল আমদানিতে অধিক সময় ও অর্থ ব্যয় করতে হতো। তেল পাইপ লাইনটির নির্মাণকাজ শেষ হলে জ্বালানি তেল আমদানিতে সময় ও অর্থের সাশ্রয় হবে বলে পেট্রো বাংলার কর্মকর্তারা জানান।

এছাড়া বাংলাদেশ রেলওয়ে ঢাকা-টঙ্গী সেকশনে ৩য় ও ৪র্থ ডুয়েলগেজ লাইন এবং টঙ্গী-জয়দেবপুর সেকশন ডুয়েল গেজ ডাবল লাইন নির্মাণ (১ম সংশোধিত)” প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়।

এসইউজে/এমএসআই