‘উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনার বিকল্প নেই’

ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫

‘উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনার বিকল্প নেই’

ভোলা প্রতিবেদক ৫:২১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৮

‘উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনার বিকল্প নেই’

পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি বলেছেন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে ফের আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় বসাতে হবে। কারণ এদেশের মানুষ বুঝে গেছে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনার বিকল্প নাই।

আজ শুক্রবার ভোলার মনপুরা উপজেলায় আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন, ছাত্র গণসংবর্ধনা ও অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

উপমন্ত্রী জ্যাকব বলেন, চরফ্যাসন-মনপুরাকে নদী ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের একাডেমিক ভবন নির্মাণ, রাস্তা পাকাকরণ, ফায়ার সার্ভিস ভবন স্থাপন, কোর্ট ভবন, খাদ্য গুদাম ভবন, আধুনিক অডিটরিয়াম নির্মাণ, সাবরেজিস্টার অফিস, হাসপাতালের উন্নয়নসহ প্রায় চার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এসে কোনো উন্নয়ন করেনি, করেছে শুধু লুটপাট। এই অঞ্চলে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিল। আমার বাবার খবর জিয়ারত করতেও দেইনি।

জ্যাবক বলেন, ২০০৮ সালের নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে বিএনপির প্রার্থীর বাড়িতে মিষ্টি ও ফুল নিয়ে যাই।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যন শেলিনা আকতার চৌধুরী, সম্পাদক একেএম শাহজাহান মিয়া, সহসভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান শাহরিয়ার চৌধুরী দীপক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল আজিজ ভূঞা, সহকারী পুলিশ সুপার শামীম কুদ্দুস ভূঁইয়া, ওসি ফোরকান আলী, জেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম নকিব, সাধারণ সম্পাদক নাছির খন্দকার, চরফ্যাসন পৌর আওয়ামী লীগের সম্পাদক ও নজরুল ফাউন্ডেশনের সম্পাদক মনির হোসেন শুভ্র, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান অলি উল্লা কাজল, ইউপি চেয়ারম্যান আমানত উল্লা আলমগীর, যুবলীগ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনিরসহ আওয়ামী লীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা।

সভা শেষে ৫৫জন কৃতি শিক্ষার্থীর হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেন উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব।

উপমন্ত্রী মনপুরা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪তলা একাডেমিক ভবন, ফৈজুদ্দিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪তলা একাডেমিক ভবন, ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে অত্যাধুনিক ডাকবাংলো ভবন, মনপুরা বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪তলা ভবন ও সাকুচিয়া নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৩তলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্থর উদ্বোধন করেন।

মনপুরা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সম্মেলনের ২য় অধিবেশনে আবুল কাশেম মেম্বারকে সভাপতি, সুলতান আহম্মেদ মাঝিকে সহ-সভপতি, মো. কবির মাঝিকে সাধারণ সম্পাদক এবং ইসলাম ফরাজীকে সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে নাম ঘোষণা করেন বিদায়ী কমিটির সম্পাদক নাছির খন্দকার।

এসবি