লাইসেন্স ছাড়া সার ব্যবসা করলে ২ বছর জেল

ঢাকা, শনিবার, ২১ জুলাই ২০১৮ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৫

লাইসেন্স ছাড়া সার ব্যবসা করলে ২ বছর জেল

সচিবালয় প্রতিবেদক ৩:০০ অপরাহ্ণ, জুন ২৫, ২০১৮

print
লাইসেন্স ছাড়া সার ব্যবসা করলে ২ বছর জেল

শাস্তির বিধান বাড়িয়ে সার ব্যবস্থাপনা সংশোধন আইন ২০১৮ এর খসড়ার অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। ২০০৬ সালের করা আইনে সংশোধন এনে এ শাস্তির বিধান বাড়িয়ে ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও অনূর্ধ্ব ৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করার বিধান রাখা হয়েছে নতুন এ আইনে।

সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মাদ শফিউল আলম সাংবাদিকের এসব কথা বলেন।

তিনি জানান, নিবন্ধন ধারা অর্থ্যাৎ এ আইনের ৮ ধারায় কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। কোনো ব্যক্তি ৮ ধারা লঙ্ঘন করলে অর্থ্যাৎ নিবন্ধন ছাড়া যদি কেউ সার ব্যবসা করে তাহলে আগে ছিল ৬ মাসের কারাদণ্ড ও ৩০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ড। এখন তা পরিবর্তন করে উক্ত অপরাধের জন্য তিনি ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও অনূর্ধ্ব ৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। 

আইনের ৮ ধারায় বলা হয়েছে, নিবন্ধন ছাড়া সার উৎপাদন,আমদানী, সংরক্ষণ, বিপনণ, বিতরণ, পরিবহন বা বিক্রয় করলে তাকে এমন শাস্তি দেওয়া যাবে।

আইনের ১৪ ধারার উপধারা ৪ এর (ক) তে কিছু বিষয় সংযুক্ত আনা হয়েছে।

এখানে বলা হয়েছে, এ ধারার অধীনে প্রদত্ত আদেশের বিরুদ্ধে সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি আদেশ প্রাপ্তির ৩০ দিনের মধ্যে আপিল কর্মকর্তার নিকট পুনর্বিবেচনার জন্য আপিল করতে পারবেন।

আবেদন প্রাপ্তির অনধিক ১০ দিনের মধ্যে তা নিস্পত্তি করতে হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, নতুন আরও একটি ধারা ২১ (ক) সংযুক্ত করা হয়েছে এ আইনে। যদি কোনো ব্যক্তি কোনো ব্যক্তির ক্ষতিসাধনের অভিপ্রায়ে এ আইনের অধীনে মামলা করার জন্য আইনানুগ কারণ নেই জানিয়েও মামলা দায়ের করেন বা করান তাহলে যিনি মামলা করিয়েছেন উক্ত ব্যক্তি দায়েরকৃত মামলার জন্য নির্ধারিত দণ্ডের সমপরিমাণ দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

আগের ২০০৬ সালের আইনের কিছু ধারায় পরিবর্তন আনা হয়েছে। ধারা ৪ এ ২০০৬ আইনে ছিল শিল্প মন্ত্রণালয়ের ১৫ জন সদস্যের সমন্ময়ে জাতীয় সার প্রমিতকরণ কমিটি গঠিত হবে। এবার এ ধারায় কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। এখানে সদস্য সংখ্যা দুইজন বাড়িয়ে মোট ১৭ জন করা হয়েছে।

সরকারের গেজেট দ্বারা কৃষি সচিবকে সভাপতি করে শিল্প মন্ত্রণালয়ের একজন প্রতিনিধিসহ মোট ১৭ জনের একটি কমিটি করা হবে।

এসএস/এএসটি

 
.



আলোচিত সংবাদ