গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান মঈন খানের

ঢাকা, রবিবার, ১৯ আগস্ট ২০১৮ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান মঈন খানের

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৩:২৬ অপরাহ্ণ, মে ১৭, ২০১৮

print
গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান মঈন খানের

দেশের বিরোধী রাজনৈতিকগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেছেন, গণতন্ত্রের জন্য উন্নয়ন ও উন্নয়নের জন্য গণতন্ত্র দরকার। বর্তমান ইসির কাঠামো দিয়ে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়। জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। আসুন সরকারকে আলাদা করে দিয়ে সব গণতান্ত্রিক দল ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন করি। আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হলে এই অবৈধ সরকার নির্বাসনে যেতে বাধ্য হবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী প্রজন্ম-৭১ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তি ও নিরপেক্ষ নির্বাচন শীর্ষক এই প্রতিবাদ সভায় আয়োজন করা হয়।

মঈন খান বলেন, 'আমরা অগণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নয়, গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে এই অবৈধ সরকারকে উৎখাত করব। আমরা তাদেরকে দেখিয়ে দিব জনগণ ঐক্যবদ্ধ থাকলে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের মাধ্যমেও ফ্যাসিবাদি শক্তিকে পরাজিত করা যায়।’

খুলনা সিটি নির্বাচনের কথা উল্লেখ করে বিএনপির এই নীতি নির্ধারক বলেন, 'খুলনায় নির্বাচন নয় প্রহসন হয়েছে। এ নির্বাচনের নামে ধোকাবাজি বিশ্বের কাছে তুলে ধরেছে মিডিয়া। যে সকল মিডিয়া সাহস করে দেশ ও বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরেছে আমি ব্যক্তিগতভাবে তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই।’

খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক বানোয়াট মামলায় কারাগারে অন্যায়ভাবে আটক রাখা হয়েছে মন্তব্য করে সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, 'সামনে গণতান্ত্রিক আন্দোলন হবে। সরকারকে বলব, সমঝোতার আসুন। জনগণের ভোটাধিকার পালনে আপনারা ব্যর্থ হয়েছেন। এ জন্য আপনাদেরকে চরম মূল্য দিতে হবে। যা আপনারা চিন্তাও করতে পারছেন না। তাই সময় থাকতে বহুদলীয় গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিন।’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ঢালী আমিনুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আহমেদ আযম, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-যুববিষয়ক সম্পাদক মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মাদ রহমাতুল্লাহ প্রমুখ।

এমএইচ/আরপি

 
.


আলোচিত সংবাদ