ইসলামে প্রতিবেশীর অধিকারগুলো জেনে নিন

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯ | ২৯ কার্তিক ১৪২৬

ইসলামে প্রতিবেশীর অধিকারগুলো জেনে নিন

পরিবর্তন ডেস্ক ৭:০৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ২১, ২০১৯

ইসলামে প্রতিবেশীর অধিকারগুলো জেনে নিন

ইসলামে প্রতিবেশীর অধিকার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়দের বাইরে আমাদের অন্যতম নিকটবর্তী ব্যক্তিরা হলেন আমাদের প্রতিবেশীরা। সম্পর্কের নিকটবর্তিতার কারণে আমাদের উপর তাদেরও কিছু অধিকার রয়েছে। মুসলমান হিসেবে এসকল অধিকারকে সম্মান করা এবং তা রক্ষা করা আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য।

সাধারণত আমরা আমাদের পিতা-মাতা, পরিবারের লোকজন, আত্মীয়-স্বজনের অধিকার রক্ষার ক্ষেত্রে অনেক সচেতন। কিন্তু বাড়ীর পাশের লোকজনের অধিকার আদায়ের ক্ষেত্রে আমাদের তেমন গুরুত্ব দেওয়া হয় না। তাদের অধিকার রক্ষার প্রসঙ্গ আমরা অধিকাংশ সময়েই পাশ কাটিয়ে যাই।

সম্মান ও আন্তরিকতার সাথে প্রতিবেশীর সাথে আচরণ করা সুন্নতের অংশ, এবং সত্যিকার মুসলমান হিসেবে প্রতিবেশীর সাথে আমাদের সম্পর্ক হবে সৌহার্দের ও সংহতির। হযরত আবদুল্লাহ ইবনে উমর (রা.) এবং হযরত আয়েশা (রা.) উভয়েই এই হাদীসটি বর্ণনা করেন যে রাসূল (সা.) বলেছেন–

“জিবরাঈল আমাকে প্রতিবেশীর অধিকার সম্পর্কে এত অধিক সুপারিশ করেছেন যে, আমার মনে হচ্ছিল তাদেরকে না উত্তরাধিকার বানিয়ে দেওয়া দেওয়া হয়।” (বুখারী)

শরীয়তে প্রতিবেশীর সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে এবং একে ঈমানের একটি অংশ হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে।

হযরত আবু শুরাইহ (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসূল (সা.) বলেছেন, “আল্লাহর কসম! সে মুমিন হতে পারে না।! আল্লাহর কসম! সে মুমিন হতে পারে না! আল্লাহর কসম! সে মুমিন হতে পারে না!”

উপস্থিত সাহাবীরা জিজ্ঞাসা করলেন, ‘হে আল্লাহর রাসূল! কে সেই ব্যক্তি?’

রাসূল (সা.) বলেন, “ঐ ব্যক্তি যার অনিষ্টতা থেকে তার প্রতিবেশীরা নিরাপদবোধ করে না।” (বুখারী)

ইসলামে একজন প্রতিবেশীর অনেক রকম অধিকার আছে। তার মধ্যে কিছু নিম্নরূপ–

সালাম-কুশলের আদান প্রদান এবং প্রতিবেশীর নিমন্ত্রণ রক্ষা করা
প্রতিবেশীর ক্ষতি করা থেকে দূরে থাকা
প্রতিবেশীর বিপদে সাহায্য করা
তার নায্য অধিকার আদায়ে তাকে সাহায্য করা
তার গোপনীয়তা এবং তার সম্মান রক্ষা করা

এছাড়া একজন পরিপূর্ণ মুসলমান প্রতিবেশীর সাথে সৌহার্দ্য রক্ষার জন্য যেসকল কাজ করতে পারে–

অসুস্থ হলে সেবা করা
মৃত্যু হলে জানাযায় অংশগ্রহণ করা
অত্যাচারিত হলে সাহায্য করা
ভুল করলে তার ভুল সংশোধন করে দেওয়া
সহযোগিতা ও সহমর্মিতার সাথে পাশে দাঁড়ানো
বিপদ-বিপর্যয়ে পাশে দাঁড়ানো
দুর্দশায় সান্তনা দেওয়া
আনন্দের সময় স্বাগত জানানো
জীবনের প্রয়োজনে সদুপদেশ দেওয়া
কোন বিষয়ে তার অজ্ঞতা থাকলে সহমর্মিতার সাথে তাকে তা জানানো
তার অনুপস্থিতিতে তার সম্পত্তি রক্ষা করা
তার ব্যক্তিগত গোপনীয়তাকে সম্মান ও সংরক্ষণ করা

অতএব, মুসলিম হিসেবে আমাদের উচিত আমাদের প্রতিবেশীদের প্রতি দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন হওয়া এবং তাদের প্রয়োজনের সময় তাদের দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া। হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসূল (সা.) বলেছেন,

“ঐ ব্যক্তি কিছুতেই ঈমানদার হতে পারে না যে তার উদর পূর্ণ করেছে কিন্তু তার প্রতিবেশী ক্ষুধার্ত অবস্থায় আছে।” (আদাবুল মুফরাদ)

এমএফ/

 

হাদিসের জ্যোতি: আরও পড়ুন

আরও